kalerkantho

সোমবার । ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ৪ ফাল্গুন ১৪২৬। ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪১

অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে অভিযান

পৌর কাউন্সিলরকে ধরে আনলেন ইউএনও, ছেড়ে দিলো পুলিশ!

জয়পুরহাট প্রতিনিধি    

২২ জানুয়ারি, ২০২০ ১০:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পৌর কাউন্সিলরকে ধরে আনলেন ইউএনও, ছেড়ে দিলো পুলিশ!

জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে নদীর তলদেশ থেকে এস্কেবেটর দিয়ে অবৈধভাবে বালু তোলার সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অভিযানে আটক পৌর কাউন্সিলর পুলিশ হেফাজত থেকে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার তুলশীগঙ্গা নদীর পাঁচ গেইট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অনেকেই বলছেন, পুলিশ তাকে ইচ্ছে করেই ছেড়ে দিয়েছে।

ক্ষেতলাল উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরাফাত রহমান জানান, বাঁধ কেটে নদীর তলদেশ থেকে এস্কেবেটর মেশিন দিয়ে বালু তোলার অভিযোগ পেয়ে ওইদিন পুলিশ সাথে নিয়ে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে ঘটনাস্থল থেকে ক্ষেতলাল পৌরসভার তিন নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর খলিলুর রহমান ও এস্কেবেটর চালক ফরিদ উদ্দিনকে আটক করা হয়। আটকের পর পৌর কাউন্সিলর পুলিশের নজর এড়িয়ে পালিয়ে যায়। ধাওয়া করেও পুলিশ তাকে ধরতে পারেনি। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ফরিদ উদ্দিনকে তিন মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়ে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। আর জব্দ করা এস্কেবেটর মেশিন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান হাইকুল ইসলামের জিম্মায় দেওয়া হয়।

ক্ষেতলাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান বলেন,আটক নয়, পৌর কাউন্সিলরের ওপর নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার। সেখান থেকে পুলিশের নজর এড়িয়ে কাউন্সিলর পালিয়ে যায়।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা