kalerkantho

শনিবার । ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ৪ রজব জমাদিউস সানি ১৪৪১

নরসিংদীতে চতুর্থ দফায় ব্রহ্মপুত্র নদ থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

নরসিংদী প্রতিনিধি    

২১ জানুয়ারি, ২০২০ ১৯:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নরসিংদীতে চতুর্থ দফায় ব্রহ্মপুত্র নদ থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

নরসিংদী সদর উপজেলার ব্রহ্মপুত্র নদ দখল মুক্ত করতে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার অংশের অবৈধ স্থাপনা চতুর্থ ধাপের উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করছে নদী রক্ষা কমিটি। আজ মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসন, সেনাবাহিনী, বিআইডব্লিউটিএ এবং পানি উন্নয়ন বোর্ডের যৌথ অংশগ্রহণে মাধবদী পৌর এলাকার কাশিপুর খেজুরতলা মোড় এলাকায় এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ সময় মাধবদী পৌর মেয়র মো. মোশাররফ হোসেন প্রধান মানিক, নরসিংদীর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সিনিয়র সহকারী কমিশনার (অর্পিত সম্পত্তি শাখা) মো. আসসাদিকজামান, সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহ আলম মিয়া, পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপপ্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) দীন ইসলামসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্ত্বাবধানে নরসিংদীর ৬টি নদীর প্রায় ২৩১ কিলোমিটারের পূনঃখনন কাজ চলমান। এর মধ্যে ব্রহ্মপুত্র নদের নরসিংদী সদর উপজেলার মাধবদী-শেখেরচর অংশের প্রায় পাঁচ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে ছোট-বড় দেড় শতাধিক অবৈধ স্থাপনা চিহ্নিত করা হয়। সেনাবাহিনীর ২৪ ইঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশন ব্রিগেড, বিআইডব্লিউটিএ, পানি উন্নয়ন বোর্ড এবং জেলা প্রশাসনের যৌথ উদ্যোগে অবৈধ এসব স্থাপনা উচ্ছেদে চতুর্থ ধাপে অভিযান শুরু করা হয়েছে।

মাধবদী পৌর মেয়র মো. মোশাররফ হোসেন প্রধান মানিক বলেন, ব্রহ্মপুত্র নদটি দখল হতে হতে প্রথমে খালে বর্তমানে নালায় পরিণত হয়েছে। মৃত এই নদটি পুরোপুরো মুক্ত করতে পারলে হয়ত এই এলাকায় প্রাণের সঞ্চার ফিরে আসবে। তবে কোনোভাবেই যেন এই উচ্ছেদ অভিযান বন্ধ হয়ে না যায় এটি এখন মাধবদীবাসীর প্রাণের দাবি।

সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহ আলম মিয়া বলেন, আমরা সিএস নকশা ধরে চতুর্থ ধাপের অভিযান পরিচালনা করছে। অচিরেই আমরা তা সম্পন্ন করতে পারব বলে আশা করছি। তারপরই সেনাবাহিনী তা পুনঃখনন শুরু করবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা