kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

বিয়ের প্রলোভনে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ, ধর্ষক আটক

বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি   

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০১:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিয়ের প্রলোভনে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ, ধর্ষক আটক

সিলেটের বিশ্বনাথে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ১৬ বছর বয়সি এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই কিশোরী উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামের বাসিন্দা। 

গত বৃহস্পতিবার রাতে কিশোরীর বাড়িতে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ সময় ধর্ষক যুবক জামিল মিয়া (২১) কে আটক করে শুক্রবার বিকেলে পুলিশে দিয়েছেন ধর্ষিতার পরিবার। সে সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক উপজেলার বইলা গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে ধর্ষিতা বাদি হয়ে একমাত্র আটক জামিল মিয়াকে আসামি করে বিশ্বনাথ থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। 

সূত্রে জানা গেছে, কিশোরীর সঙ্গে আটক যুবক জামিল মিয়ার আত্মীয়তার সম্পর্ক রয়েছে। একে অপরের বাড়িতে যাওয়া আসা করত। এর সুবাধে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। গত সপ্তাহে ওই কিশোরী আটককৃত যুবকের বাড়িতে বেড়াতে যায়। 

এরপর গত বৃহস্পতিবার রাতে ওই কিশোরীর বাড়িতে যুবক বেড়াতে আসে। রাত আনুমানিক ১২টায় কিশোরীর রুম থেকে যুবক জামিলকে আটক করেন কিশোরীর পরিবার। এ সময় তাকে গণধোলাই দেওয়া হয়। পরে তাকে পুলিশে দেন কিশোরীর পরিবার। অবশেষে ওই কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগ এনে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। তবে কিশোরীর পরিবারের দাবি, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে জামিল ধর্ষণ করেছে।  

আটক যুবক জামিলকে আসামি করে ধর্ষণ মামলা দায়েরের সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার এসআই গোপেশ দাস বলেন, আটককৃত আসামিকে আজ শনিবার আদালতে প্রেরণ করা হবে বলে তিনি জানান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা