kalerkantho

শনিবার । ২৫ জানুয়ারি ২০২০। ১১ মাঘ ১৪২৬। ২৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

সন্ধ্যাকালীন কোর্স বন্ধের ব্যাপারে ইউজিসির চিঠির অপেক্ষায় চবি

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়   

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:১৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সন্ধ্যাকালীন কোর্স বন্ধের ব্যাপারে ইউজিসির চিঠির অপেক্ষায় চবি

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) বহুল বিতর্কিত ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের অধীনে  সন্ধ্যাকালীন এমবিএ কোর্স বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চিঠি পেলেই দাপ্তরিকভাবে এই কোর্স বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হবে। তবে সন্ধ্যাকালীন কোর্সে যেসব শিক্ষার্থী এরই মধ্যে ভর্তি  হয়েছেন তাঁদের কোর্স সম্পন্ন করার ক্ষেত্রে কোনো বিধিনিষেধ থাকবে না। গতকাল শুক্রবার দুপুরে চবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার কালের কণ্ঠকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন। 

তিনি বলেন, ‘যেহেতু মহামান্য রাষ্ট্রপতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ধ্যাকালীন কোর্সের মান নিয়ে কথা বলেছেন; মূলত এরই পরিপ্রেক্ষিতে ইউজিসি এই কোর্স বন্ধের নির্দেশনা দিয়েছে। তাই আমরা ইউজিসির চিঠি পেলেই সন্ধ্যাকালীন কোর্স বন্ধ করে দেব। তবে ইতিমধ্যে যারা ভর্তি হয়ে গেছে তারা কোর্স সম্পন্ন করতে পারবে।’

জানা যায়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদ ২০১২ সালে সন্ধ্যাকালীন এমবিএ কোর্স চালু করে শহরে। বিশ্ববিদ্যালয়ে বহুতল ভবন থাকলেও শহরে বড় অঙ্কের  টাকায় ভবন ভাড়া নিয়ে এ কোর্স চালিয়ে আসছেন ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদ। বর্তমানে দুই সেমিস্টারে প্রায় চার শ শিক্ষার্থী সন্ধ্যাকালীন কোর্সে এমবিএ করছেন। আর এসব কোর্সে ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ৫০ জনের মতো শিক্ষক পর্যায়ক্রমে ক্লাস নেন।  

চবির সন্ধ্যাকালীন এমবিএ কোর্সের পরিচালক ও ফিন্যান্স বিভাগের অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর আলম কালের কণ্ঠকে বলেন, ইউজিসি থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এখনো এই কোর্স বন্ধের চিঠি পায়নি। তবে শিগগিরই পেয়ে যাবে। চিঠি পাওয়ার পর বিশ্ববিদ্যালয় সিনেট, সিন্ডিকেট ও সংশ্লিষ্টরা যেভাবে সিদ্ধান্ত নেবে, সেভাবে এই সন্ধ্যাকালীন কোর্সের ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা