kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

বড়লেখায় মৎস্য খামারের ঝোপে মিলল মেছো বাঘের ৫ ছানা

বড়লেখা (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি   

১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৮:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বড়লেখায় মৎস্য খামারের ঝোপে মিলল মেছো বাঘের ৫ ছানা

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় একটি মৎস্য খামারের ঝোপে মেছো বাঘের ৫টি ছানার সন্ধান পাওয়া গেছে। ছানাগুলোর এখনও চোখ ফুটেনি। ধারণা করা হচ্ছে দুই-একদিন আগে ছানাগুলোর জন্ম হয়েছে। এদিকে এই খবর ছড়িয়ে পড়লে মেছোবাঘের ছানাগুলো দেখতে দুপুর থেকেই উৎসুক জনতা সেখানে ভিড় জমান।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার রাঙাউটি গ্রামে সাংবাদিক ইকবাল হোসেন স্বপনের বসত বাড়ির কাছে তাদের ব্যক্তিগত একটি মৎস্য খামার রয়েছে। ওই মৎস্য খামারের পাড়ে বেশকিছু ঝোঁপঝাড় রয়েছে। সেখানেই মেছোবাঘের বাচ্চাগুলোর সন্ধান পাওয়া যায়।

গতকাল বুধবার দুপুরে এক রাখাল গরু নিয়ে মৎস্য খামারের পশ্চিম পাড়ের দিকে রওয়ানা হলে গরুগুলো হাক-ডাক, দৌঁড়াদৌঁড়ি ও অস্বাভাবিক আচরণ করে। এ সময় হঠাৎ ঝোপ থেকে মেছোবাঘটি লাফিয়ে উঠে। পরে ওই স্থানে গিয়ে ৫টি মেছোবাঘের ছানা পাওয়া যায়।

স্বপন এ বিষয়ে জানান, প্রথমে তিনি বড় আকারের শিয়াল মনে করেছিলেন। বাচ্চাগুলো দেখার পর নিশ্চিত হন এটি মেছোবাঘ। তাকে দেখেই বাচ্চা ফেলে সে পাশ্ববর্তী ষাটমা ছড়ার পারের জঙ্গলে চলে যায়। বাচ্চাগুলোর এখনো চোখ ফুটেনি। তিনি বনবিভাগে খবর দিলেও বাচ্চাগুলো নিতে দেননি। যেখানে ছিল সেখানেই রেখে দিয়েছেন। রাতে মা মেছোবাঘ ঠিকই তার বাচ্চাগুলোকে নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে যাবে বলে তিনি মনে করছেন।

বনবিভাগের বড়লেখা রেঞ্জের সহযোগী রেঞ্জ কর্মকর্তা শেখর রঞ্জন দাস বুধবার (১১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাতটায় জানান, বিষয়টি তিনি বন্য প্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগকে জানিয়েছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা