kalerkantho

বুধবার । ২২ জানুয়ারি ২০২০। ৮ মাঘ ১৪২৬। ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

প্রেমিককে বেঁধে রেখে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ, আটক ৩

চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২৩:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রেমিককে বেঁধে রেখে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ, আটক ৩

ছবি: কালের কণ্ঠ

হবিগঞ্জের চুনারুঘাট সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে প্রেমিকের সঙ্গে ঘুরতে এসে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে মাধবপুর লোকনাথ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী (১৬)। এ ঘটনায় তিন যুবককে আটক করেছে বন বিভাগ।

আজ বুধবার দুপুরে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে প্রেমিক বি-বাড়িয়ার সড়াইল উপজেলার রানিদিয়া গ্রামের হাকিমুন হাসান সাকিব (১৮) এর সঙ্গে লোকনাথ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী (১৬) ঘুরতে আসেন।

এ সময় গহীন জঙ্গলে ৫/৬ জনের একটি বখাটে দল প্রেমিককে বেঁধে রেখে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ করে। তাদের চিৎকারে সাতছড়ি বিট অফিসার সামসুদ্দিনসহ জঙ্গলে পাহারারত বন বিভাগের লোকজন তিন বখাটে যুবককে আটক করে চুনারুঘাট থানায় সোপর্দ করে। 

আটককৃতরা হলেন, চুনারুঘাট উপজেলার আমতলী গ্রামের আব্দুল হাসিমের পুত্র রুবেল মিয়া (২৪) তার বন্ধু রহমতাবাদ গ্রামের মৃত ছিদ্দিক আলীর ছেলে মানিক মিয়া (৩০) ও নরপতি গ্রামের মৃত ওয়াহেদ আলীর ছেলে তিন সন্তানের জনক হারিছ মিয়া (৩৫)।

ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রী বর্তমানে চুনারুঘাট থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। প্রেমিক যুবক পলাতক। রাত ১০টা পর্যন্ত এ রির্পোট লিখা পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাজমুল  হক বলেন, স্কুলছাত্রীর অভিভাবকদের খবর দেওয়া হয়েছে। স্কুলছাত্রী বলছে তাকে বকাটেরা ধর্ষণ করেছে। বিষয়টি নিশ্চিত নয়। ডাক্তারি পরীক্ষায় বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা