kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

মাদক ব্যবসা বন্ধে পুলিশের অভিযান, দুই কারবারির কারাদণ্ড

বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২১:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মাদক ব্যবসা বন্ধে পুলিশের অভিযান, দুই কারবারির কারাদণ্ড

অবশেষে সুফল পেতে শুরু করেছেন দিনাজপুরের বিরামপুর ৪ নম্বর ওয়ার্ডের অভিভাবকগণ। এলাকায় মাদক বিক্রি ও সেবন বন্ধে প্রশাসনের কাছে দেওয়া অভিযোগের মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুই ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে। পরে তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুর রহমান তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে এই রায় দেন।

দুই ব্যবসায়ী হলেন, পৌর শহরের কৃষ্টচাঁদপুরের মৃত্যু সাহাদ আলীর ছেলে সেলিম মিয়া (৩৫) ও মানিক মিয়ার স্ত্রী রোজিনা বেগম রোজী (৪০)। এর মধ্যে সেলিম মিয়াকে ৮ মাস এবং রোজিনা বেগমকে ৬ মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

এর আগে, মঙ্গলবার বিকেলে কৃষ্টচাঁদপুর গ্রামের প্রায় ২৫ জন নারী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খায়রুল ইসলাম রাজু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৌহিদুর রহমান, ওসি মনিরুজ্জামানকে এলাকায় মাদক ব্যাবসায়ী ও সেবনকারীদের দৌরাত্মের বর্ণনা দিয়ে মাদক বন্ধে সহযোগিতা চান।

এ সময় নারীরা অভিযোগ করেন, ওই এলাকায় একই পরিবারে বাবা, মা, ভাই, বোন, ভাবী ও দুলাভাইসহ মাদক ব্যবসায় জড়িত। তাদের পরিবারের কেউ সাজাপ্রাপ্ত হলে তাদের ব্যবসা থেমে থাকে না। বরং আরো জমজমাট ভাবে চালিয়ে যায়। 

তারা অভিযোগ করেন, মাদক ব্যবসার জন্য ওই ব্যবসায়ীরা শিশুদের ব্যবহার করছেন। তারা মেয়েদের দিয়ে রাস্তার মোড়ে মোড়ে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন।

থানার ওসি মনিরুজ্জামান মনির কালের কণ্ঠকে বলেন, এলাকাবাসীদের মৌখিক অভিযোগ পেয়ে রাতেই অভিযান চালিয়ে দুই ব্যবাসায়ীকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। 

তিনি বলেন, ওই এলাকায় মাদক নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত অভিযান অব্যাহত থাকবে। মাদক সেবনকারী বা ব্যবসায়ী যেই হোক কোনো ছাড় দেওয়া হবে না।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৌহিদুর রহমান জানান, এলাকাবাসীদের অভিযোগের বিষয়টি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে। মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা