kalerkantho

বুধবার । ২৯ জানুয়ারি ২০২০। ১৫ মাঘ ১৪২৬। ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১     

প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ে জনবল সংকট পাকুন্দিয়ায়

পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি    

১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৮:২৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ে জনবল সংকট পাকুন্দিয়ায়

প্রয়োজনীয় জনবলের অভাবে কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ে দাপ্তরিক কাজকর্ম বিঘ্নিত হচ্ছে। ফলে এ কার্যালয়ে নানান কাজে আসা লোকজনকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। 

সংশ্লিষ্ট কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, এ উপজেলার একটি পৌরসভা ও ৯টি ইউনিয়নে ১৯৪টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এ বিদ্যালয়গুলোকে সাতটি ক্লাস্টারে ভাগ করা হয়েছে। প্রতিটি ক্লাস্টারে একজন করে সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা থাকার কথা থাকলেও এ কার্যালয়ে দীর্ঘদিন ধরে তিনটি সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তার পদ শুন্য। এ ছাড়াও একটি করে পিয়ন, অফিস সহায়ক (এমএলএসএস) ও কম্পিউটার অপারেটরের পদ দীর্ঘদিন ধরে শূন্য। 

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ফাইজ উদ্দিন আকন্দ ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে চিকিৎসা ছুটিতে রয়েছেন। এরপর থেকে সহকারী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আনিসুর রহমান এ পদে ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ফলে তাকে দাপ্তরিক কাজকর্ম নিয়েই ব্যস্ত থাকতে হয়। এ কারণে বিদ্যালয় পরিদর্শনসহ দাপ্তরিক কাজকর্ম বিঘ্ন ঘটছে। পাশাপাশি নানা কাজে আসা লোকজন দীর্ঘদিন ধরে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। 

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার অতিরিক্তের দায়িত্বে থাকা (ভারপ্রাপ্ত) মো. আনিসুর রহমান এর সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পদগুলো শূন্য থাকায় অন্যদের অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে। এ ছাড়া আমাকে নিজ দায়িত্বসহ শিক্ষা কর্মকর্তার অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

কিশোরগঞ্জ জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সুব্রত কুমার বণিক বলেন, শূন্যপদগুলোর জন্য ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। তবে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তিনি কিছুদিনের মধ্যেই এ কার্যালয়ে যোগদান করবেন। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা