kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

সিলিন্ডার থেকে গ্যাস স্থানান্তর

বিস্ফোরণে দেয়াল ধসে পথচারী নারী শ্রমিক নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৪:৩৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিস্ফোরণে দেয়াল ধসে পথচারী নারী শ্রমিক নিহত

প্রতীকী ছবি

আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলে একটি সোয়েটার কারখানায় গ্যাস হিটার মেশিন বিস্ফোরণের ঘটনায় দেয়াল চাপা পড়ে পথচারী এক নারী শ্রমিকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত তিনজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে আশুলিয়ার খেজুরবাগান এলাকার গৌরিপুরে ন্যাচারাল সোয়েটার ভিলেজ লিমিটেড কারখানায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত শ্রমিকের নাম রিমা খাতুন (৩৫)। তাঁর বাড়ি কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী থানার খরখরিয়া ঝাকোয়াপাড়া গ্রামে। তিনি আশুলিয়ার মুরাদ অ্যাপারেলস লিমিটেড পোশাক কারখানায় অপারেটর হিসেবে চাকরি করতেন। 

ঢাকা রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকার (ডিইপিজেড) ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম কালের কণ্ঠকে জানান, সকালে ন্যাচারাল সোয়েটার কারখানায় বাইরের একটি সিএনজি পাম্প থেকে মিনি ট্রাকে বসানো সিলিন্ডার থেকে কারখানাটির গ্যাস হিটার মেশিনের মাধ্যমে গ্যাস স্থানান্তর করার সময় মেশিনটি বিস্ফোরিত হয়। এতে উড়ে যায় টিনশেডের চাল ও পাশে থাকা কারখানাটির দেয়াল।

সকালে কর্মস্থলে যাওয়ার পথে ধসে পড়া ওই দেয়ালের নিচে চাপা পড়ে পথচারী নারী শ্রমিক রিমার মৃত্যু হয়। এ সময় জলিল মিয়া (৫০), মাহফুজা বেগম (৪০) ও আইয়ুব আলী (৪০) নামের আরো তিন শ্রমিক আহত হলে তাঁদের সাভারের এনাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, মূলত  বাইরের সিএনজি পাম্প থেকে সিলিন্ডারের মাধ্যমে গ্যাস নিয়ে কারখানার গ্যাস ট্রান্সফার মেশিনের মাধ্যমে গ্যাস স্থানান্তর করার কতটুকু বৈধতা আছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পাশাপাশি কারখানার কাজগপত্র যাচাই করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আশুলিয়া শিল্প পুলিশ-১-এর পরিদর্শক মাহমুদুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে আশুলিয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। গ্যাস সঞ্চালন লাইনের পাইপে বিস্ফোরণ হয়ে ভবনের দেয়াল ধসে গার্মেন্ট শ্রমিক নারী পথচারী নিহত হওয়ার ঘটনা তদন্ত করে আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে।

উল্লেখ্য, শিল্পাঞ্চল সাভার-আশুলিয়াসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সিএনজি পাম্প থেকে সিলিন্ডার ভর্তি করে গ্যাস সরবরাহ করে শিল্প-কারখানায় ব্যবহার করছে অনেকেই। নিম্নমানের সিলিন্ডার ও নিয়মবহির্ভূত-ঝুঁকিপূর্ণ ব্যবহারের কারণেই ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা