kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ জানুয়ারি ২০২০। ৭ মাঘ ১৪২৬। ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলা, ভাঙচুর

রংপুর অফিস   

১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২২:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জমি নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলা, ভাঙচুর

রংপুর মহানগরীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বাসা বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর করে জোরপূর্বক উচ্ছেদের অভিযোগ উঠেছে এক। শ্লীলতাহানিসহ নগদ ও কয়েক লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট হয়েছে। কেড়ে নেয়া হয়েছে স্কুল পড়ুয়া দুই শিশু শিক্ষার্থীর বই-খাতাসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রাদি। এমনকি বাড়ি থেকে বের করে দেয়ায় ওই পরিবারের শিশু পরীক্ষা দিতে পারছে না, রাত কাটছে খোলা আকাশের নিচে।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে রংপুর প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই অভিযোগ তুলে ধরেন নগরীর মুলাটোল পাকার মাথা এলাকার চশমা ব্যবসায়ী মশিউর রহমানের পরিবার। 

সংবাদ সম্মেলনে মশিউর রহমান বলেন, পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া ১২ শতাংশ জমির ওপর বাড়ি নির্মাণ করে বসবাস করছেন তারা। এদিকে ওই জমি নিজেদের দাবি করে গতকাল সোমবার আয়েশা বেগম ও আকিবুল ইসলামসহ ১৫/২০ জন হামলাকারীরা বাসা বাড়িতে জোরপূর্বক প্রবেশ করে হামলা চালায়। এ সময় তারা ঘরের জিনিসপত্র ভাঙচুর ও লুটপাট করে। শুধু তাই নয়,  শ্লীলতাহাননিও করে। ছেলে-মেয়ের বইখাতাসহ ঘরের সব কিছু তারা নিয়ে যায়। এ কারণে তার ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে মার্জিয়া তাবাসসুম ও প্লে পড়ুয়া তানবীর মাহাতাব গত দুই দিনে চলমান বার্ষিকা পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেনি। বাকি পরীক্ষাগুলোতে তাদের অংশগ্রহণ নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

হামলাকারীরা সম্পূর্ণ পরিকল্পিতভাবে অমানবিক প্রক্রিয়ার এ ধরণের উচ্ছেদ চালিয়ে জোরপূর্বক জমি দখলের চেষ্টা করছে দাবি করে মশিউর রহমান বলেন, আদালতে মামলা চলমান থাকার পরও প্রতিপক্ষের লোকজনেরা এ ধরণের ঘটনা ঘটিয়েছে। তার নগদ টাকা, বাসার বাইরের ও ঘরের দামী আসবাবপত্রসহ প্রায় সাড়ে নয় লাখ টাকার মালামাল নিয়ে গেছে। বর্তমানে তারা চরম নিরাপত্তাহীনতায় খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে।

এ সময় নিজের জমি থেকে উচ্ছেদের শিকার এই পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তা নিশ্চিতসহ হামলাকারীদের ব্যাপারে দ্রুত আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা