kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৩ জানুয়ারি ২০২০। ৯ মাঘ ১৪২৬। ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১          

ব্রাহ্মণবাড়িয়া মুক্ত দিবসে ‘বিজ্ঞাপন মুক্ত’ হলো বিদ্যালয়ের দেয়াল

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২১:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্রাহ্মণবাড়িয়া মুক্ত দিবসে ‘বিজ্ঞাপন মুক্ত’ হলো বিদ্যালয়ের দেয়াল

রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে আন্দোলন চলছে, ৭ মার্চ ভাষণ দিচ্ছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, চলছে সম্মুখযুদ্ধ, গণহত্যা, পাকবাহিনীবধ, বিজয় উল্লাস, বধ্যভূমিতে শায়িত আছেন শহীদরা, ৭১’র একটি চিঠি, শরণার্থী গমন, একাত্তরের স্মৃতি বিজড়িত স্থান, শহীদ মিনার, স্মৃতিসৌধ- এ সবই এক দেয়ালে। এ যেন দেয়ালে বাংলার ইতিহাস।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপন মুছে দিয়ে দেয়ালে আঁকা হয়েছে বাংলাদেশের ইতিহাস। রবিবার সকাল আটটা আট মিনিটে ব্রাহ্মণবাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের এ দেয়াল উন্মোচন করা হয়। পাঁচজন মুক্তিযোদ্ধা ‘রঙিন হবে আমাদের স্কুল’ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া মুক্ত দিবস উপলক্ষে ‘আমরাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া’ নামে একটি ফেসবুকভিত্তিক সংগঠন এ আয়োজন করে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া শিশু নাট্যমের অন্তত ৩০ শিক্ষার্থী এক সপ্তাহে ছবিগুলো আঁকে।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো. জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়া সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আল-মামুন সরকার। বিশেষ অতিথি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ এ এস এম শফিকুল্লাহ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মোস্তফা কামাল।

মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে শুভেচ্ছা স্মারক তুলে দেন সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. লোকমান হোসেন, প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক দীপক চৌধুরী বাপ্পী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন জামি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. বাহারুল ইসলাম মোল্লা। আয়োজনকে কেন্দ্র করে গান ও নাচ পরিবেশন করা হয়।

এদিকে মুক্ত দিবস বাস্তবায়ন পরিষদের উদ্যোগে ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ পৌর মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধা আল-মামুন সরকারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান। এর আগে বঙ্গবন্ধু স্কয়ারে গার্ড অব অনার ও পুষ্পস্তবক অর্পণ কর্মসূচি পালন করা হয়।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা