kalerkantho

বুধবার । ২৯ জানুয়ারি ২০২০। ১৫ মাঘ ১৪২৬। ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১     

রক্ষক যখন ভক্ষক

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, রংপুর   

৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৮:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রক্ষক যখন ভক্ষক

‘রক্ষক যখন ভক্ষক’- এ প্রবাদের যথার্থ প্রমাণ মিলেছে রংপুরের বদরগঞ্জ পৌরশহরে। রাতে যাদের পাহারায় (নৈশ প্রহরী) ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে নিশ্চিন্তে বাসায় ঘুমাতে যান সাধারণ ব্যবসায়ীরা। সেই পাহারাদারেরা জোটবদ্ধ হয়ে ব্যবসায়ীর গুদাম ঘরের তালা ভেঙে ২৮ বস্তা চাল চুরির সময় হাতেনাতে ধরা খেয়েছেন।

আজ রবিবার (৮ ডিসেম্বর) ভোরের দিকে মিতা সিনেমা হল সংলগ্ন এলাকায় গুদামের তালা ভেঙে রিকশায় করে চালের বস্তা চুরি করে নেওয়ার সময় পুলিশের হাতে ধরা পড়েন নৈশপ্রহরী সাহেব আলী (৩২), রজিবুল ইসলাম (২০) ও রিকশাভ্যান চালক মফিজুল ইসলাম। তাদের রংপুর কারাগারে পাঠানো হয়েছে। 

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, চাল ব্যবসায়ী শরিফুল হুদা প্রতিদিনের মতো তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে রাতে বাসায় চলে যান। রাতে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ আশপাশের দোকান পাহারার দায়িত্ব পালন করে সাহেব আলী ও রজিবুল ইসলাম। রবিবার ভোরের দিকে শরিফুল হুদার গুদামের তালা ভেঙে সাহেব আলী, রজিবুল ইসলাম ও রিকশা ভ্যানচালক মফিজুল ইসলাম জোটবদ্ধ হয়ে ২৮ বস্তা চাল রিকশাভ্যানে করে নেওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় পৌরশহরের সিও রোডে বদরগঞ্জ থানার টহল পুলিশের হাতে তারা আটক হন।

বদরগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুর রহমান হাওলাদার বলেন, অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড ঠেকাতে প্রতি রাতে পৌরশহরের আশপাশে টহল পুলিশ নিয়োজিত থাকে। মূলত তাদের হাতেই ধরা পড়ে তিন চোর।
   

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা