kalerkantho

বুধবার । ২৯ জানুয়ারি ২০২০। ১৫ মাঘ ১৪২৬। ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১     

কনটেন্ট মুক্ত ব্রাউজার আবিষ্কার একাদশের শিক্ষার্থীর

দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি   

৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৭:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কনটেন্ট মুক্ত ব্রাউজার আবিষ্কার একাদশের শিক্ষার্থীর

অ্যাডাল্ট কনটেন্ট মুক্ত শিক্ষার্থী বান্ধব ব্রাউজার আবিষ্কার করে নতুন প্রজন্মকে রীতিমতো চমকে দিলেন নেত্রকোনার দুর্গাপুরের অদম্য মেধাবী শিক্ষার্থী মুহ্তাসিম আলম মারুফ। উদ্ভাবক ব্রাউজারের নাম দিয়েছেন ‘ ৩৬০ ব্রাউজার’। তিনি পৌর সদরের দেশওয়ালীপাড়াস্থ মাহবুবুল আলমের ছেলে। তার পিতা একজন মাধ্যমিকের গ্রন্থাগারিক শিক্ষক, মা মাহমুদা বেগম পেশায় গৃহিনী।

ব্রাউজারের উদ্ভাবক একাদশের শিক্ষার্থী মারুফ জানান, আমি ছোট থেকেই বিজ্ঞানের সৃষ্টি, তার কৌশল আর ভাবনা নিয়ে প্রায় সময়ই একা একা ভাবতাম। আর সেই ভাবনা থেকেই নতুন প্রজন্ম ও শিক্ষার্থীদের অ্যাডাল্ট কনটেন্ট মুক্ত শিক্ষার্থী বান্ধব একটি ব্রাউজার তৈরির পরিকল্পনা করতে থাকি। আমার শিক্ষক ও সহপাঠীদের নিয়ে পুরো ১ মাস সময় নিয়ে এ ব্রাউজারটি তৈরি করি।

তিনি আরো বলেন, ৩৬০ ব্রাউজার নামের উদ্ভাবিত এই ব্রাউজারটি অ্যান্ড্রওয়েড ফোনগুলোর জন্য বেশ উপকারী। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে শেষের দিকে ব্রাউজারটি তৈরি করার স্বপ্ন দেখেন মারুফ। 
বর্তমান সময়ে ইন্টারনেট ব্যবহারের অনেক ব্রাউজার রয়েছে বাজারে। কিন্তু  ব্রাউজারগুলোতে অ্যাডাল্ট কনটেন্ট আর শিক্ষার্থীদের জন্য ক্ষতিকর নানা রকম বিজ্ঞাপন থাকায় তাদের জন্য অনেকটা ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এ ছাড়াও ব্রাউজারগুলোর ফাঁদে পড়ে নষ্ট হচ্ছে শিক্ষার্থীদের গুরুত্বপূর্ণ ভবিষ্যত। তাই শিক্ষার্থীদের অল্প সময়ের মাঝে প্রয়োজনীয় তথ্য সুবিধা নিশ্চিত করবে এই ৩৬০ ব্রাউজার। পাশাপাশি শিক্ষা ক্ষেত্রে বিভিন্ন সাইটের ওয়েব এড্রেসও অ্যাড করা হয়েছে ব্রাউজারটিতে।

গত ১ ডিসেম্বর ৩৬০ ব্রাউজারটির পুরোপুরি কাজ শেষ করে মারুফ। এর মাঝে জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞান মনস্ক করতে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ৩ দিনব্যাপী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা খবর শুনে কলেজের শিক্ষকদের জানান তিনি। পরে কলেজের শিক্ষক শিক্ষার্থীদের সহায়তায় মেলায় ৩৬০ ব্রাউজারটি প্রদর্শন করেন মারুফ।

মেলায় বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করে তার এই ব্রাউজারটি। শিক্ষার্থী থেকে মেলায় আগত সকলের দৃষ্টি কাড়ে এই নতুন উদ্ভাবনী ব্রাউজার আবিষ্কারে। সবাই তার এই ব্রাউজারটি নিয়ে যায় ফোনগুলোতে। পরে বৃহস্পতিবার দুপুরে মেলা চত্বরেই মারুফের উদ্ভাবিত ইন্টারনেট ব্যবহারের ৩৬০ ব্রাউজারটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ইউএনও ফারজানা খানম।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা