kalerkantho

বুধবার । ২৯ জানুয়ারি ২০২০। ১৫ মাঘ ১৪২৬। ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১     

বাধা উপেক্ষা করে গোপালপুরে সিপিবির পদযাত্রা-পথসভা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৫:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাধা উপেক্ষা করে গোপালপুরে সিপিবির পদযাত্রা-পথসভা

দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে ১৭ দফা দাবি নিয়ে গোপালপুর উপজেলা সিপিবির উদ্যোগে গতকাল ৬ ডিসেম্বর শুক্রবার  শহরের হেমনগর পার্টি কার্যালয় থেকে সকাল ১১ টায় পদযাত্রা শুরু হয়। কালীমন্দির এলাকায় প্রথম পথসভায় বক্তব্যকালে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা বাধা দেন। এসময় সভায় উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে বাধা উপেক্ষা করে পদযাত্রা আবারও শুরু হয়ে পদযাত্রা। এরপর দ্বিতীয় পথসভা সম্পন্ন শেষে পোড়াবাড়ি এলাকায় সিপিবি নেতাকর্মীদের বাধা দেয় পুলিশ। সাময়িক কিছু উত্তেজনার পর পাগলাবাজার, সিমলাবাজার, ভেংগুলা বাজারে পথসভার মাধ্যমে সমাপ্ত হয়।

পথসভায় বক্তারা বলেন, আজ (গতকাল) ৬ ডিসেম্বর। স্বৈরাচার পতন দিবস। ১৯৯০ সালের এই দিনে স্বৈরাচার এরশাদের পতন হয়েছিল দেশকে একটি গণতান্ত্রিক ধারায় পরিচালনা করার জন্য। দুঃখজনক হলেও সত্য এই ২৯ বছর গণতন্ত্র তো প্রতিষ্ঠিত হয়নি। বরং শাসক গোষ্ঠী ফ্যাসীবাদী ধারায় রাষ্ট্র পরিচালনা করছে। বাকস্বাধীনতা নেই, নির্বাচনী ব্যবস্থাসহ সকল গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে। কৃষক তার ধানসহ অন্যান্য পণ্যের ন্যায্য দাম পাচ্ছে না। দেশে এখন লুটপাটতন্ত্র চলছে।উন্নয়নের নামে চলছে হরিলুট, আর তারই খেসারত দিতে হচ্ছে মেহনতি মানুষকে। অবিলম্বে ১০৪০ টাকা দরে সরকারী উদ্যোগে ধান ক্রয়, ইউনিয়নে ইউনিয়নে সরকারী ক্রয় কেন্দ্র চালুর দাবি জানানো হয়। 

পদযাত্রা- পথসভায় বক্তব্য রাখেন টাংগাইল জেলা সিপিবির সভাপতি কমরেড আব্দুর রাজ্জাক, জেলা সাধারণ সম্পাদক কমরেড ওয়াহিদুজ্জামান, জেলা কমিটির সংগঠক কমরেড আব্দুর রশিদ কান্দু, ময়মনসিংহ জেলা সিপিবির সদস্য কমরেড আল আমিন আহমেদ জুন,ঘাটাইল উপজেলা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কমরেড হাবীবুর রহমান, গোপালপুর উপজেলা সিপিবির সাধারণ সম্পাদক সাবেক কমিশনার কমরেড হাবীব মন্ডল, ভূয়াপুর উপজেলা সিপিবি সাধারণ সম্পাদক সাবেক ভিপি আশরাফ তালুকদার, কৃষক সমিতি কেন্দ্রিয় সাংগঠনিক সম্পাদক কমরেড জাহিদ হোসেন খান, কৃষক সমিতি কেন্দ্রিয় কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য রুম্মান হায়দার,ধনবাড়ি উপজেলা সিপিবির কমরেড নিরেশ, কমরেড ইকবাল হোসেন জুপিটারসহ উপজেলার বিভিন্ন গণসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা