kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

মোহনগঞ্জে সৎ মায়ের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ

হাওরাঞ্চল প্রতিনিধি   

৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২১:৩৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মোহনগঞ্জে সৎ মায়ের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ উপজেলার সুখদেবপুর-বানিয়াহারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী রুনা আক্তারকে (১৪) শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগে বাবা ও সৎ মাকে আটক করেছে পুলিশ। আজ বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার বড়তলী-বানিয়াহারী ইউনিয়নের সুখদেবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১৬ বছর আগে উপজেলার সুখদেবপুর গ্রামের মৃত আলী হোসেনের ছেলে রফিকুল ইসলামের সঙ্গে একই গ্রামের মৃত আব্দুল খালেকের মেয়ে শাবানা আক্তারের বিয়ে হয়। তাদের দাম্পত্য জীবনে স্কুলছাত্রী রুনাসহ আরো তিন ছেলের জন্ম হয়। গত প্রায় দুই বছর আগে রফিকুল ও তার স্ত্রী শাবানা আক্তারের মধ্যে দাম্পত্য কলহ দেখা দেয়। এক পর্যায়ে রফিকুল তার স্ত্রী শাবানাকে মারধর করে বড় মেয়ে রুনাকে নিজের কাছে রেখে অপর তিন সন্তানসহ তাকে বাপের বাড়ি পাঠিয়ে দেয়। এর কিছুদিন পরেই রফিকুল পাশের বারহাট্টা উপজেলার সিংধা ইউনিয়নের মল্লিকপুর গ্রামের আব্দুস ছাত্তারের মেয়ে হেপী আক্তারকে দ্বিতীয় বিয়ে করে বাড়ি নিয়ে আসেন। তাদের দাম্পত্য জীবনেও একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। এরপর থেকেই সৎ মা হেপী আক্তার স্কুল ছাত্রী রুনা আক্তারের ওপর বিভিন্নভাবে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালিয়ে আসছিলেন।

গত দুইদিন ধরে স্কুলছাত্রী রুনা জ্বরে ভুগছিল। বুধবার দুপুরে জ্বর নিয়ে রুনা ঘুমিয়ে থাকে। তার বাবা রফিকুল ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালানোর উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। এরই সুযোগে সৎ মা হেপী আক্তার রুনাকে ঘুমন্ত অবস্থায় ঘরে একা পেয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে 'আত্মহত্যা' বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। পরে প্রতিবেশিরা বিষয়টি টের পেলে হেপী বাড়ি থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টাকালে স্থানীয় লোকজন তাকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধারসহ সৎ মা ও বাবা রফিকুলকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

মোহনগঞ্জ থানার ওসি মো. শওকত আলী বুধবার রাত সাড়ে আটটায় মোবাইল ফোনে কালের কণ্ঠকে বলেন, এই মূহুর্তে এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রজু করা হয়েছে এবং নিহতের পিতা ও সৎ মাকে জিজ্ঞাসাবাদদের জন্য আটক করা হয়েছে।

ওসি আরো বলেন, নিহত ওই স্কুলছাত্রীর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বৃহস্পতিবার সকালে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা