kalerkantho

সোমবার । ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ১ পোষ ১৪২৬। ১৮ রবিউস সানি                         

জাল পাসপোর্টে ভারতে যাওয়ার সময় রোহিঙ্গা যুবতী আটক

দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি   

৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৮:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জাল পাসপোর্টে ভারতে যাওয়ার সময় রোহিঙ্গা যুবতী আটক

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে জাল পাসর্পোটে ভারতে অনুপ্রবেশের সময় ফাতেমাতুজ জহুরা (২১) নামে এক রোহিঙ্গা যুবতীকে আটক করেছে ইমিগ্রেশন পুলিশ। আটককৃত ফাতেমাতুজ জহুরা ট্যাংখালি রোহিঙ্গা ক্যাম্প ১৯ টেকলাফের বসবাসকারী হলেও তার পাসপোর্টে ঠিকানা দেওয়া হয়েছে লালমনিরহাট জেলার কালিগঞ্জ থানার তুসভান্ডার গ্রামের সানি আহম্মেদের মেয়ে। মঙ্গলবার সন্ধায় দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট থেকে পুলিশ তাকে আটক করে।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে সে দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট, কাস্টমস ও বিজিবির চেকপোস্টে এন্ট্রি না করে কৌশলে ভারতীয় ইমিগ্রেশনে প্রবেশ করে। এ সময় ভারতীয় ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করার সময় ইমিগ্রেশন কর্মকর্তার সন্দেহ হলে তাকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠায়। আগমনের সময় তার বাহিরাগমনের রিপোর্ট পরীক্ষা-নিরিক্ষা করে দেখা যায় যে কম্পিউটারে তার কোনো তথ্য লিপিবন্ধ করা নেই। তার পাসর্পোটে দর্শনা ইমিগ্রেশনের ভুয়া সিল ব্যবহার করা হয়েছে। যা বর্তমান সিলের সাথে কোনো মিল নাই। তার পাসর্পোটটি দর্শনা ইমিগ্রেশনের থ্রি-এম এর মাধ্যমে পরীক্ষা-নিরিক্ষা করে দেখা যায় তার নামে ইসুকৃত পাসর্পোটটি জাল-জালিয়াতি করে তৈরি করা হয়েছে। 

আটককৃত ফাতেমাতুজ জহুরা জানান, তার নাম রজিনা (২১) পিতা, নুর আলম, সাং- ট্যাংখালি, থানা টেকনাফ, জেলা কক্সবাজার। তার দেশের ঠিকানা মংণ্ডে জেলার কুমড়ণ্ড থানার বাসিন্দা সে। লালমনিরহাট থেকে পাসপোর্ট করেছে। যার নম্বর ঘই০৭৬৪২৫৭। পাসপোটে ইসুকৃত ঠিকানা ফাতেমাতুজ জহুরা, পিতা সানি আহম্মেদ, সাং তুসভান্ডার, থানা কালিগঞ্জ, জেলা লালমনিরহাট। 

মঙ্গলবার রাতেই দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের এসআই জিয়াউল হক বাদী হয়ে ভুয়া পাসর্পোট তৈরি পেনাল কোর্ড আইনে মামলা দায়ের পূর্বক দামুড়হুদা মডেল থানায় হস্তান্তর করেছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা