kalerkantho

মঙ্গলবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১২ রবিউস সানি     

শিশু হত্যায় স্বীকারোক্তি আদালতে

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি   

৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৮:১৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শিশু হত্যায় স্বীকারোক্তি আদালতে

গোপালগঞ্জে সাত বছর বয়সী শিশু জয় বিশ্বাসকে হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন সৎ মা আঁখি বিশ্বাস (২০)। বুধবার গোপালগঞ্জের চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে তিনি স্বীকারোক্তি দেন। শিশুকে গলাটিপে হত্যার পর লাশ পুকুরে ফেলে দেন বলে আঁখি জানান।

স্বজনরা জানান, জয় বিশ্বাসের পিতার নাম ধর্মেন্দ্র বিশ্বাস। তাদের বাড়ি গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামে। শনিবার বাড়ির পাশের একটি পুকুর থেকে ভাসমান অবস্থায় জয়ের লাশ উদ্ধার হয়। তার দুদিন আগে থেকে জয় নিখোঁজ ছিল। এ বিষয়ে থানায় জিডি করা হয়। গোপালগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো. হুমায়ুন কবিরের আদালতে বুধবার আঁখি বিশ্বাসের স্বীকারোক্তির আগে পর্যন্ত শিশু জয়ের মৃত্যু নিয়ে ছিল বিস্তর রহস্য।

গোপালগঞ্জ সদর থানার এসআই সাখাওয়াত হোসেন মৃধা জানান, ২৮ নভেম্বর সন্ধ্যায় জয় পড়ালেখা করার সময় সৎ মা আঁখি বিশ্বাস শাসন করতে গিয়ে ঘাড়ে আঘাত করেন বলে স্বীকার করেছেন। জয় অচেতন হয়ে পড়লে আঁখি তার গলা টিপে মৃত্যু নিশ্চিত করে। এরপর বাড়ির পাশে পুকুরে ফেলে দেয়া হয় জয়ের লাশ।

পুলিশ সন্দেহবশত মঙ্গলবার সৎ মা আঁখি বিশ্বাসকে আটক করে। এরপর ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে জয় হত্যার বিষয়ে তথ্য মেলে। প্রথমে পুলিশের কাছে ঘটনার বর্ননা দেন আঁখি । পরে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা