kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

গরু বিক্রির বাকি টাকা তুলতে মানববন্ধন!

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি   

৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৯:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গরু বিক্রির বাকি টাকা তুলতে মানববন্ধন!

গত কোরবানি ঈদে সোহাগ মিয়ার খামার থেকে ১৪টি গরু বাকিতে কিনেছিলেন কলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. জাকির হোসেন। কথা ছিল ঈদের দুদিন পরই টাকা দেবেন। কিন্তু চার মাসেও টাকা না পেয়ে এলাকার লোকজনকে নিয়ে মানববন্ধন করে বাকি টাকা পরিশোধের দাবি জানিয়েছেন সোহাগ মিয়া। মানববন্ধন থেকে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার তালুকনগর এলাকায় এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় বক্তব্য রাখেন ইউপি সদস্য আমজাদ হোসেন, মোছা. হাসিনা বেগম, রায়হান হামিদ হৃদয়, সাবেক ইউপি মেম্বার সোরহাব, কলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম, যুবলীগ নেতা আব্দুস সাত্তার, জেরিন ফারজানা রিয়াসহ এলাকাবাসী। 

সোহাগ মিয়া জানান, তার খামার থেকে জাকির হোসেন ১৪টি গরু ১৭ লাখ ৫০ হাজার টাকায় কেনেন। নগদ দেন ৫০ হাজার টাকা। বাকি ১৭ লাখ টাকা ঈদের দুদিন পরেই শোধ করে দেবেন। কিন্তু একটি টাকাও দেননি। টাকা চাইলে উল্টো হুমকি দেয়। এদিকে মানববন্ধনে বক্তরা অভিযোগ করেন, বিভিন্ন অনিয়ম দুর্নীতির কারণে চেয়ারম্যান জাকির হোসেনকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

জাকির হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, তার কাছে দশ লাখ টাকা পাওনা ছিল। তিনি টাকার চেক দিয়ে দিয়েছেন। বরখ্স্তা প্রসঙ্গে জানান, এ ব্যাপারে তিনি হাইকোর্টে রিট করেছেন। কোর্টের নির্দেশে তিনি চেয়ারম্যানের দায়িত্বে আছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা