kalerkantho

সোমবার । ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ১ পোষ ১৪২৬। ১৮ রবিউস সানি                         

হবিগঞ্জে আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে ঘিরে উৎসব মুখর পরিবেশ

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৮:৫৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



হবিগঞ্জে আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে ঘিরে উৎসব মুখর পরিবেশ

আগামী ১১ ডিসেম্বর হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিল। সম্মেলনকে কেন্দ্র করে সমগ্র জেলায় ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে। প্রতিদিনই বিভিন্ন উপজেলায় সম্মেলন ও বর্ধিতসভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। পাশাপাশি কাউন্সিলে ৮ পদে ২৯ প্রার্থী লড়াই করছেন। তারা ছুটে যাচ্ছেন জেলার এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে কাউন্সিলারদের কাছে।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে সম্মেলনের ভেন্যু পরিদর্শন করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। এ সময় মঞ্চ তৈরি স্থান এবং প্যাভিলিয়নের স্থান নির্ধারণ করেন। জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির এমপি ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ খান এমপিসহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

জেলা আওয়ামীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির জানান, সম্মেলন যাতে ঝাকজমক হয় তার জন্য সব ধরনের চেষ্টা করা হচ্ছে। এবার প্রথমবারের ন্যায় নৌকা মঞ্চ বানানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

এর আগে সোমবার দুপুরে সম্মেলনকে সফল করার লক্ষ্যে সংবাদ সম্মেলন করেছে হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ। সংবাদ সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির বলেছেন, হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলের মাধ্যমে নেতা নির্বাচন হয়ে আসছে। এবার আশাকরি তার ব্যতিক্রম হবে না। ৩৫৯ জন কাউন্সিলার সরাসরি ভোটে তাদের নেতা নির্বাচন করবেন।
১১ ডিসেম্বর সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। পরে বিকেলে কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে জেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ এমপি, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, অ্যাডভোকেট মিসবা উদ্দিন সিরাজ, কেন্দ্রীয় সদস্য বদরুদ্দিন আহমেদ কামরান, র আ ম উবায়দুল মোক্তাদির এমপি ও অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম।

এদিকে হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলে সব সময় ভোটের মাধ্যমে নেতা নির্বাচন করা হয়। এবারও সেই ঐতিহ্য ধরে রাখতে বদ্ধ পরিকর জেলা আওয়ামী লীগ। তৃণমূলের নেতারাও চান অতীতের ন্যায় নিজেরাই ভোটের মাধ্যমে তাদের নেতা নির্বাচিত করবেন। কাউন্সিল উপলক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের গঠিত নির্বাচন কমিশনে ৮টি পদে ২৯ জন প্রার্থী মনোনয়ন দাখিল করেছেন। যা বিগত যেকোনো কাউন্সিলের তুলনায় নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করেছে।

নির্বাচনে সভাপতি পদে বর্তমান সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির এমপি, সাবেক সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. মুশফিক হোসেন, সাবেক সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি অ্যাডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী, অ্যাডভোকেট ফজলে আলী ও অ্যাডভোকেট আবুল হাশেম মোল্লা মাসুম মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

সাধারণ সম্পাদক পদে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ খান এমপি, অ্যাডভোকেট আলমগীর চৌধুরী, অ্যাডভোকেট আবু বক্কর ছিদ্দিক ও মোতাচ্ছিরুল ইসলাম মনোনয়ন দাখিল করেন।

৩টি যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে বর্তমান যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান তালুকদার, মর্তুজা হাসান, অ্যাডভোকেট ছালেহ আহমেদ, জাকির হোসেন চৌধুরী অসীম, নিজামুল হক রানা, অ্যাডভোকেট সুমঙ্গল দাশ সুমন, অনুপ কুমার দেব মনা, আলমগীর খান, মর্তুজ আলী, অ্যাডভোকেট নিলাদ্রী শেখর পুরকায়স্থ টিটো, সৈয়দ কামরুল হাসান, অ্যাডভোকেট আতাউর রহমান, মাহবুবুল আলম মালু, অ্যাডভোকেট মো. আবুল আজাদ মনোনয়ন দাখিল করেন।

৩টি সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মশিউর রহমান শামিম, অ্যাডভোকেট সুলতান মাহমুদ, নুর উদ্দিন চৌধুরী বুলবুল, আহাদ মিয়া, আব্দুল মুনতাকিম চৌধুরী খোকন, ফয়জুল বশির চৌধুরী সুজন মনোনয়ন দাখিল করেছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা