kalerkantho

শনিবার । ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৯ রবিউস সানি ১৪৪১     

জাল সনদে চাকরির অভিযোগ, সেই আওয়ামী লীগ নেতা সাময়িক বরখাস্ত

সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি   

৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৫:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জাল সনদে চাকরির অভিযোগ, সেই আওয়ামী লীগ নেতা সাময়িক বরখাস্ত

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে জাল সনদে প্রভাষক পদে চাকরি করা সেই আওয়ামী লীগ নেতাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে মাদরাসা পরিচালনা কমিটি। সেই সাথে তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের বিষয়ে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ১০ কর্মদিবসের মধ্যে ওই আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ।

সোমবার বিকেলে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে ম্যানেজিং কমিটি। চাঁদ মিয়া নামের ওই আওয়ামী লীগ নেতা দীর্ঘ ২০ বছর ধরে জাল সনদে প্রভাষক (সমাজবিজ্ঞান) পদে উপজেলার আমগঞ্জ আলিম মাদরাসায় চাকরি করে আসছিলেন। তিনি উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের পূর্ব বাছহাটি গ্রামের আছর উদ্দিন সরকারের ছেলে  এবং সর্বানন্দ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি। এ নিয়ে জেলা মাধ্যমিক কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দেন অছিম উদ্দিন নামের এক অভিভাবক।

গত ২৪ নভেম্বর এ নিয়ে কালের কণ্ঠের প্রিয় দেশ পাতায় 'সুন্দরগঞ্জে আওয়ামী লীগ নেতার জাল সনদে চাকরির অভিযোগ' শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। সংবাদ প্রকাশের পর নড়েচড়ে বসে ওই মাদরাসা কর্তৃপক্ষ। সংবাদের সূত্র ধরে সাময়িক বরখাস্ত করা হয় আওয়ামী লীগ নেতাকে। সেই সাথে অভিযোগের বিষয় খতিয়ে দেখতে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয় ম্যানেজিং কমিটি। আর ওই প্রভাষককে আগামী দশ কর্মদিবসের মধ্যে তার শিক্ষাগত যোগ্যতার সকল সনদের সত্যায়িত কপি দাখিল করতে বলা হয়েছে। অন্যথায় তার বিরুদ্ধে স্থায়ী বহিষ্কারসহ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে মাদরাসা কর্তৃপক্ষ।

সাময়িক বরখাস্ত করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মাদরাসার ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি জিয়াউল করিম সাজা। তিনি বলেন, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে জাল সনদে চাকরি করার অভিযোগের সংবাদ দেখার পর আমরা তাঁকে সাময়িক বরখাস্ত করেছি। সেই সাথে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করছি। আগামী দশ কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করবে তদন্ত কমিটি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা