kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

কলাপাড়ায় চার বখাটে গ্রেপ্তার

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি   

২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২১:৫৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কলাপাড়ায় চার বখাটে গ্রেপ্তার

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় চার বখাটে যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তারা নীলগঞ্জ ইউনিয়নের দৌলতপুর ছালেহিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার এক ছাত্রীকে যৌন নির্যাতন করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। জনতা চারজনকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করলেও বেশ কয়েকজন পালিয়ে যায়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, নবম শ্রেনীতে পড়া এক শিক্ষার্থী রবিবার পরীক্ষায় অংশগ্রহনের জন্য বাড়ি থেকে মাদ্রাসায় যাচ্ছিল। পথে মামুন মিয়া নামের এক যুবক তার পথরোধ করে। অশ্লিল অঙ্গভঙ্গিসহ আজেবাজে কথা বলে। এরপর শিক্ষার্থী পরীক্ষা শেষে যখন বাড়ি ফিরছিল তখন তাহেরপুর গ্রামের মাটিরকিল্লার কাছে ফের পথরোধ করা হয়। সেখানে মামুনসহ কয়েকজন যুবক শিক্ষার্থীর ওপর যৌন নির্যাতন চালায় ও চরমভাবে হেনস্থা করে।

এদিকে শিক্ষার্থী নিপীড়নের অভিযোগ পেয়ে স্থানীয়রা ক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেন। তারা নীলগঞ্জ ইউনিয়নের উমেদপুর স্ট্যান্ড থেকে সরোয়ার হোসেন (২০), মো. নোমান (২০), মো. হাসান গাজী (২১) এবং নাজমুল গাজী (২০) নামে চারজনকে আটক করে। এরপর তাদের কলাপাড়া থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। আটক চার বখাটের বাড়ি নীলগঞ্জ ইউনিয়নের কুমিরমারা গ্রামে।

নির্যাতনের শিকার শিক্ষার্থীর পিতা বাদি হয়ে আট জনের বিরুদ্ধে কলাপাড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ জনতার হাতে আটক চার যুবককে সে মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়েছে।

কলাপাড়া থানার এসআই আলমগীর জানান, ঘটনায় জড়িত চার যুবককে জনতা আটক করে পুলিশে দিয়েছেন। মামলার অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা