kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

বাবুর্চির বদনাম করতে...

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

২১ নভেম্বর, ২০১৯ ২২:৪০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাবুর্চির বদনাম করতে...

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে মো. রাজিব মিয়া (৩৭) নামে এক কসাইকে বৃহস্পিতবার বিকেলে বিয়ে বাড়ি থেকে আটক করেছে পুলিশ। বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য সরবরাহ করা মাংসে ‘কেমিক্যাল’ মেশানোর অভিযোগে তাকে আটক করে পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

পুলিশ জানায়, উপজেলার বুধন্তি ইউনিয়নের বারঘরিয়া গ্রামের মো. শাহজুত খানের ছেলে মো. আইয়ুব খানের বৌভাত উপলক্ষে বুধবার রাত থেকেই বাড়িতে রান্নার আয়োজন করা হয়। বৃহস্পতিবার সকালে গরুর মাংস রান্নার করার সময় এর রঙ ভিন্ন হয়ে যায়। এতে বাড়ির লোকজনের সন্দেহ হয়। এ অবস্থায় কসাইকে ডেকে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে মাংসে ‘কেমিক্যাল’ জাতীয় কিছু মেশানের কথা স্বীকার করে। পরে তাকে পুলিশের কাছে তুলে দেওয়া হয়। এ বিষয়ে অভিযোগ দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।    

আটক কসাই পুলিশকে জানিয়েছেন, লোকজনকে অসুস্থ বানাতে অন্য এক বাবুর্চির বুদ্ধিতে তিনি এ কাজ করেছেন। আটক রাজিব উপজেলার বারঘরিয়া গ্রামের সৈয়দ মিয়ার ছেলে।

ইসলামপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আ. স. ম. আতিকুর রহমান কালের কণ্ঠকে জানান, আটক কসাই রাজীব জানিয়েছেন রান্না করতে থাকা বাবুর্চির বদনাম করাতে আরেক জনের পরামর্শে এমন কাজ করেছেন। কেমিক্যাল মেশানে মাংস খেলে পেট খারাপসহ অন্যান্য সমস্যা হতো। 

পুলিশের ওই কর্মকর্তা আরো জানান, কসাইয়ের দেওয়া তথ্য যাচাই করা হচ্ছে। তবে মাংসে কি মেশানো হয়েছিল সেটা পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়া বলা সম্ভব নয়। বরের পরিবারের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ দিবে বলেছে। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা