kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৭ রবিউস সানি ১৪৪১     

সরকারি গুদামে ধান ক্রয়ে লটারি

রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি   

২১ নভেম্বর, ২০১৯ ২০:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সরকারি গুদামে ধান ক্রয়ে লটারি

প্রান্তিক কৃষকের কাছে থেকে ধান কিনতে স্বচ্ছতার জন্য ঠাকুরগাঁওয়ের  রাণীশংকৈল উপজেলায় অনুষ্ঠিত হয়েছে লটারি। চাহিদা অনুসারে লটারি বিজয়ী কৃষক প্রতি কেজি ২৬ টাকা দরে ১ টন ধান দিতে পারবেন সরকারি খাদ্য গুদামে। ধান ক্রয়ের এ পদ্ধতিতে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন স্থানীয় কৃষকরা।

সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে রাণীশংকৈল উপজেলা হলরুমে অনুষ্ঠিত হয় লটারি কার্যক্রম। সরকার ধান ক্রয়ের যে লক্ষ্যমাত্রা দিয়েছে তার ভিত্তিতে তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে ইতিমধ্যে। আর সে তালিকা অনুসারে প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে লটারির ব্যবস্থা করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌসুমি আফরিদা, কৃষি অফিসার সঞ্জয় দেবনাথ, টিসিএফ রেজাউল করিম, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মাহবুব আলম, আব্দুর রউফ প্রমূখ। প্রতিটি ইউনিয়নের উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

চলতি বছর রাণীশংকৈল উপজেলায় ২৬শ' প্রান্তিক কৃষকের কাছে থেকে ২ হাজার ৫৩৮ মেট্রিক টন ধান সংগ্রহ করবে সরকার। এরমধ্যে পৌরসভা এলাকায় ৬৭, ধর্মগড় ইউপিতে ২৭২, নেকমরদ ইউপিতে ৩৪১, হোসেনগাঁওয়ে ২৮৫, লেহেম্বা ইউপিতে ৩৩৪, বাচোর ইউপিতে ২৮২, কাশিপুর ইউপিতে ৩১৪, রাতোর ইউপিতে ৩১৩ ও নন্দুয়ার ইউপিতে ৩৩০ মেট্রিক টন ধান কেনা হবে।
প্রত্যাশা অনুযায়ী বেশি পরিমাণ ধান বিক্রি না করতে পারলেও কৃষকরা লটারি পদ্ধতি নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা