kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৭ রবিউস সানি ১৪৪১     

বিরামপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন

বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

২১ নভেম্বর, ২০১৯ ২০:৩৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিরামপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন

দিনাজপুরের বিরামপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে দুই পক্ষ পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন করেছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে বিরামপুর প্রেস ক্লাবে শহরের ঈদগাহ আবাসিক এলাকার মোকছেদুর রহমান চৌধুরীর পুত্র আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

এর আগে ১৮ নভেম্বর রংপুর প্রেস ক্লাবে আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরীর প্রতিপক্ষ বিরামপুর উপজেলার একইর গ্রামের মতিয়ার রহমান চৌধুরীর পুত্র হাসিনুর রহমান চৌধুরী সংবাদ সম্মেলন করেন।

বিরামপুর প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী লিখিত বক্তব্যে বলেন, আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী ও তার ভাই বোনদের নামে প্রায় ৮ একর জমি মাসুদের দাদী রেজিস্ট্রি হেবা করে দেন। ঐ জমি নিয়ে মামলায় আদালত হাসিনুর রহমান চৌধুরীর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার রায় প্রদান করেন। আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরীর জমির কাজে নিয়েজিত শ্রমিকগণ গত ৪ আগস্ট’ আমন চারা রোপন করে বাড়ি ফিরার পর হাসিনুর রহমান চৌধুরী ও তার ছেলে, ভাই, ভাতিজা মিলে শ্রমিকদের উপর হামরা চালিয়ে গুরুত্বর জখম করে।এ ঘটনায় ৫ আগস্ট বিরামপুর থানায় একটি মামলা হয়েছে।

তিনি বলেন, গত ৯ নভেম্বর মাসুদ চৌধুরীর লাগানো ধান কাটার জন্য হাসিনুর রহমান চৌধুরীর লোকজন লাঠি, তীর-ধনুক নিয়ে ওই জমিতে যাওয়ার চেষ্টা করলে থানা পুলিশ ঐসব দেশীয় অস্ত্র ঘটনাস্থল থেকে জব্দ করে আনে। এ কারণে হাসিনুর চৌধুরী বিরামপুর থানা প্রশাসনের উপর ক্ষিপ্ত হন এবং থানার ওসি মনিরুজ্জামানের নামে বিভিন্ন মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করে রংপুরে সংবাদ সম্মেলন করেন। স্থানীয়ভাবে গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উভয় পক্ষকে আদালতের আদেশ মান্য ও শান্তি শৃংখলা বজায় রেখে বিরোধ নিস্পত্তির অনুরোধ করা সত্ত্বেও হাসিনুর চৌধুরী জোর করে ধান কাটার পাঁয়তারা করছে।

লিখিত বক্তব্যে তিনি অভিযোগ করে বলেন, মতিয়ার রহমান চৌধুরীর পুত্র হাসিনুর রহমান চৌধুরী একজন লোভি প্রকৃতির লোক। হাসিনুর রহমান চৌধুরীর লোভের কারণে তার নিজের মা ২০১৬ সালে বিরামপুর থানা ছেলের বিরুদ্ধে লুটপাট ও আসবাবপত্র ভাঙচুরের মামলা করেন এবং তার সহোদর এক ভাই থানায় অভিযোগ করেন।

আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী বিষয়টি সুষ্ঠু তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পুলিশের সদরদপ্তর, রংপুরের ডিআইজি, দিনাজপুরের পুলিশ সুপারসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরীর সাথে তার পিতা মোকছেদুর রহমান চৌধুরী, নিকটাত্মীয় মোসলেম চৌধুরী নালকু, সাদ্দাম চৌধুরী ও আলমগীর চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা