kalerkantho

শনিবার । ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৯ রবিউস সানি ১৪৪১     

বাজি ধরে সাঁতার কাটতে গিয়ে যুবক নিখোঁজ

বরিশাল অফিস   

২০ নভেম্বর, ২০১৯ ২০:১৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাজি ধরে সাঁতার কাটতে গিয়ে যুবক নিখোঁজ

বরিশালের দুর্গাসাগর দীঘিতে সাঁতার কাটতে গিয়ে হৃদয় (২৫) নামে এক যুবক নিখোঁজ হয়েছে। আজ বুধবার দুপুর ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিখোঁজ হৃদয় বরিশাল নগরীর কাউনিয়া হাউজিং এলাকার শাহে আলমের ছেলে এবং আহসানউল্ল্যাহ ইউনিভার্সিটির টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং এর শেষ বর্ষের ছাত্র। বিকেল ৫টা পর্যন্ত তার সন্ধান পাওয়া যায়নি।

নিখোঁজ হৃদয় আহমেদের বন্ধু হৃদয় খান জানান, তারা দুই বন্ধু ও তাদের এক বান্ধবী সাঁতরে দীঘির মাঝখানের টিলায় যাওয়া নিয়ে দুই শ টাকার বাজি ধরে। হৃদয় দীঘির দক্ষিণ প্রান্ত থেকে উত্তর প্রান্তে সাঁতরে যায়। টিলার কাছাকাছি গিয়ে সে আমাদের উদ্দেশ্যে হাতও নাড়ায়। পরে তার খোঁজ না পেয়ে দুর্গাসাগর কর্তৃপক্ষকে জানাই। পরে থানা পুলিশ দীঘি কর্তৃপক্ষ, ফায়ার সার্ভিসের সদস্য ও স্থানীয়দের সহায়তায় হৃদয়ের সন্ধান চালানো হয়।

নিখোঁজ হৃদয়ের বান্ধবী রাকিন বলেন, টিলার কাছাকাঠি গিয়ে সে হাত নাড়িয়েছে। প্রায় আধা ঘণ্টা অতিবাহিত হওয়ার পর সে ফিরে না আসায় আমরা ভেবেছি হয়তো দুষ্টুমি করছে। কিন্তু পরে তাকে পাওয়া যায়নি।

দীঘির দায়িত্বে থাকা জেলা প্রশাসনের নাজির মো. সাঈদ হোসেন জানান, হৃদয় তার এক বন্ধু ও এক বান্ধবীকে নিয়ে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঘুরতে আসে। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তারা জানায় হৃদয় দীঘিতে সাঁতার কাটতে নামে এবং তাকে পাওয়া যাচ্ছে না।

নিখোঁজ হৃদয়ের বাবা পুলিশের এসআই শাহে আলাম বলেন, দুই ভাইবোনের মধ্যে হৃদয় বড়। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা থেকে বরিশালে আসে। আগামী শনিবার ঢাকায় যাওয়া কথা। এরই মধ্যে কি দিয়ে কি হয়ে গেলে।

এ বিষয়ে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের এয়ারপোর্ট থানার ওসি (তদন্ত) এমআর মুকুল জানান, ওই যুবকের সন্ধানে দীঘিতে তল্লশী অভিযান চলছে। তবে এখনো তার সন্ধান পাওয়া যায়নি।

উদ্ধার কাজ তদারকির দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. শহিদুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে বলেন, নিখোঁজের সন্ধান না পাওয়া পর্যন্ত অভিযান চলবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা