kalerkantho

শনিবার । ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৬ রবিউস সানি               

যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি   

২০ নভেম্বর, ২০১৯ ১৯:২৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

বগুড়ার ধুনট উপজেলা যুবলীগের সদস্য আব্দুস সবুরকে (৩৫) কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। বুধবার বেলা দুইটায় নান্দিয়ারপাড়া ফকিরপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে তাকে হত্যা করা হতে পারে বলে স্বজনদের দাবি। পুলিশ এ ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

স্বজনরা জানান, আব্দুস সবুর নিমগাছি ইউনিয়নের নান্দিয়ারপাড়া ফকিরপাড়া গ্রামের আব্দুর রহিম ফকিরের ছেলে। যুবলীগের রাজনীতিতে জড়িত থাকার পাশপাশি সবুর গবাদিপশুর চিকিৎসক হিসেবে কাজ করতেন। প্রতিবেশি জনাব আলীর ছেলে কামরুল ইসলামের সাথে জমিজমা নিয়ে বিরোধ ছিল। কামরুল নিমগাছি ইউনিয়ন যুবলীগের বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদক।  বুধবার দুপুরে পশু চিকিৎসার জন্য সবুরকে ডেকে নেন কামরুল। বাড়ির পাশে বাগানের ভেতর নিয়ে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। পরে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে।

চাচা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সুজাউদৌলা রিপন বলেন, 'বসতবাড়ির ১৮ শতক জমি নিয়ে বিরোধেই খুন করা হয়েছে সবুরকে। কামরুল ও তার লোকজন ডেকে নিয়ে হত্যা করেছে। সম্প্রতি মাদক ব্যবসার অভিযোগে কামরুলকে যুবলীগ থেকে বহিস্কার করা হয়েছে।'

ধুনট থানার ওসি ইসমাইল হোসেন জানান, আব্দুস সবুরের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে এ হত্যার কথা শোনা গেছে। এ বিষয়ে মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা