kalerkantho

সোমবার । ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ১ পোষ ১৪২৬। ১৮ রবিউস সানি                         

মোনাই ত্রিপুরা পল্লীকে মডেল হিসেবে গড়তে চান জেলা প্রশাসক

হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মোনাই ত্রিপুরা পল্লীকে মডেল হিসেবে গড়তে চান জেলা প্রশাসক

ছবি: কালের কণ্ঠ

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনী ইশতেহারে বলেছিলেন গ্রাম হবে শহর। তাই প্রত্যেক গ্রামকে শহরের আদলে সাজাতে সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছেন। সরকারের উন্নত দেশ গড়ার ভিশন বাস্তবায়ন করতে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

সরকারের এ চ্যালেঞ্জকে সামনে রেখে ফরহাবাদ ইউনিয়নের উদালিয়ার অবহেলিত ত্রিপুরা পল্লীর জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে প্রশাসন কাজ করে যাচ্ছে। গত মঙ্গলবার দুপুরে ফরহাদাবাদ ইউনিয়নের উদালিয়া মোনাই ত্রিপুরা পাড়ায় বসবাসরত ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠির জীবন মান উন্নয়নে স্বাস্থ্য, শিক্ষা, ক্রীড়া, সাংস্কৃতিক সামগ্রী বিতরণ এবং দুর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন এসব কথা বলেন। 

জেলা প্রশাসক ইলিয়াস তার বক্তব্যে আরো বলেন, যে ত্রিপুরা পল্লীতে কোনো স্বাস্থ্য, শিক্ষা, স্যানিটেশন, যোগাযোগ, বিনোদন, বিদ্যুৎ, ধর্মীয় উপাসনালয় ছিল না। বর্তমানে এ পল্লীবাসী এসব বিষয়ে অগ্রগতি হয়েছে। এসব সমস্যার বেশির ভাগই সমাধান হয়েছে। বাকী সমস্যাগুলো সমাধানের জন্য প্রশাসন কাজ করছে। শুষ্ক মৌসুমে ৭৮ লাখ টাকা ব্যয়ে এইচবিবি সড়ক নির্মাণ কাজ শুরু হবে।

অবহেলিত এ পল্লীর অধিবাসীদের দুর্যোগ সহনীয় বাসস্থান নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে উন্নয়ন কাজ পরিচালনা করে ক্ষুদ্র-নৃ-গোষ্ঠীর এ পল্লীকে মডেল হিসাব গড়ে তুলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ২০৪১ সালের মধ্যে গ্রামকে শহরের পরিণত করার অঙ্গীকার বাস্তবায়ন করা হবে।

মোনাই ত্রিপুরা পল্লী চত্বরে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল আমীন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ১নং ফরহাদাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান মো. ইদ্রিস মিয়া তালুকদার। 

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলাম এমরান ও ত্রিপুরা পল্লীর অধিবাসীদের পক্ষে শচিন ত্রিপুরা। অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসকের স্টাফ অফিসার তানভীর ফরহাদ শামীম, ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান আলী আকবরসহ ইউপি সদস্যরা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। পরে অতিথিরা ত্রিপুরা পল্লীর ১৩০ স্কুল-শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ, স্কুল ড্রেস, ক্রীড়া সামগ্রী রেইনকোটসহ প্রয়োজনীয় বিভিন্ন স্বাস্থ্য সরঞ্জাম বিতরণ করেন। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা