kalerkantho

শনিবার । ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৯ রবিউস সানি ১৪৪১     

হরিণাকুণ্ডুতে কথিত বন্দুকযুদ্ধ, 'জনযুদ্ধের কমান্ডার' নিহত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০৮:৫০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হরিণাকুণ্ডুতে কথিত বন্দুকযুদ্ধ, 'জনযুদ্ধের কমান্ডার' নিহত

ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুতে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে বাদশা শেখ (৫০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। গতকাল রবিবার (১৭ নভেম্বর) দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার তেতুলিয়ার মোড়ে এ 'বন্দুকযুদ্ধের' ঘটনা ঘটে।

নিহত বাদশা ওই উপজেলার জোড়াপুকুর গ্রামের হেলাল উদ্দিনের ছেলে। পুলিশের দাবি, তিনি জনযুদ্ধের আঞ্চলিক কমান্ডার ছিলেন। ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, চার রাউন্ড গুলি ও দুইটি হাঁসুয়া উদ্ধার করা হয়েছে এবং এ ঘটনায় পুলিশেরও দুই সদস্য আহত হয়েছেন বলে দাবি করা হয়েছে পুলিশের পক্ষ থেকে।

হরিণাকুণ্ডু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামানের ভাষ্যমতে, জনযুদ্ধের আঞ্চলিক কমান্ডার বাদশাহ তাঁর লোকজন নিয়ে মেহগনি বাগানে গোপন বৈঠক করছেন- এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টহল পুলিশের একটি দল ওই এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বাদশা ও তাঁর লোকজন পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। একপর্যায়ে বাদশা গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন। তাঁকে উদ্ধার করে হরিণাকুণ্ডু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।'

ওসি বলেন, এ ঘটনায় পুলিশের এসআই সোরোয়ার হোসেন ও কনস্টেবল সোহেল আহত হয়েছেন। তাঁরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। বাদশার বিরুদ্ধে হরিণাকুণ্ডু থানায় সাতটি হত্যা ও দুইটি অস্ত্র মামলা রয়েছে বলেও জানান ওসি। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা