kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

বিএনপি রেল ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিয়েছিল : রেলমন্ত্রী

পঞ্চগড় প্রতিনিধি   

১৭ নভেম্বর, ২০১৯ ২০:৪১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিএনপি রেল ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিয়েছিল : রেলমন্ত্রী

রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় থাকার সময় এক শ রেলস্টেশন বন্ধ করে দিয়েছিল। তারা রেলকে ধ্বংস করে দিয়েছে। সেই ধ্বংসপ্রাপ্ত রেল বর্তমান সরকার ঢেলে সাজাতে শুরু করেছে। ২০১৪ সালের মতো আবার ট্রেনে আগুন দেওয়া শুরু করেছে। এই উল্লাপাড়াতেই গোটা ট্রেন জ্বালিয়ে দিয়েছিল। যাতে মানুষ রেলে নিরাপদে ও স্বল্প খরচে যাতায়াত করতে না পারে।

আজ রবিবার দুপরে পঞ্চগড়ের বোদা মহিলা মহাবিদ্যালয় মাঠে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বোদা পৌরসভার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি আরো বলেন, ৯১-৯২ সালে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ১০ হাজার রেল কর্মকর্তা কর্মচারীকে গোল্ডেন হ্যান্ড শেখের মাধ্যমে বিদায় করে দিয়েছে। ১৯৮৬ সালের পর রেলে কোনো নিয়োগ হয়নি। ১২টি লাইন ও এক শ স্টেশন বন্ধ করে দিয়েছে। ৬৮ হাজার কর্মকর্তা কর্মচারী থেকে এখন ২৭ হাজারে নেমে এসেছে। জনসংখ্যা বাড়ার সাথে সাথে রেলে পরিধি বাড়ায় এখন কমপক্ষে এক লাখ ৪০ হাজার কর্মকর্তা কর্মচারী প্রয়োজন। সৈদপুর রেলকারখানায় চার হাজার মানুষ কাজ করতো। এখন সেখানে মাত্র ১৪০০ কাজ করছে। এই কারখানাও ধ্বংস করেছে বিএনপি জামায়াত জোট সরকার। আমরা এই কারখানাটিকে আরো সক্রিয় করতে কাজ করছি।

মন্ত্রী বলেন, বর্তমানে বঙ্গবন্ধু সেতুর উজানে ডবল লাইনসহ নতুন সেতু নির্মাণ কাজ শিগগিরই শুরু হবে। টঙ্গী থেকে জয়দেবপুর পর্যন্ত, জয়দেবপুর থেকে ময়মনসিংহ পর্যন্ত ডবল লাইনের প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। একটা মাত্র লাইনের কারণে সময়ে বিপর্যয় ঘটছে। পদ্মা সেতু নির্মিত হলে যশোর পর্যন্ত ১৭২ কিলোমিটার ডবল লাইন নির্মাণ করা হবে।

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, প্রত্যেক নেতাকর্মীদেরকে মানুষের সেবা ও কল্যাণের জন্য কাজ করতে হবে। কোন পদবি নয়, এটা হলো দায়িত্ব। বঙ্গবন্ধুর কর্মী দাবি করলে দায়িত্বও আসবে। আমরা অনেক সময় দায়িত্বটা অনুভব করি না। তিনি দেশ, সমাজ, প্রতিবেশি ও সাধারণ মানুষের বিপদে আপদে কাছে থেকে সহযোগিতার জন্য নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান।

তিনি বলেন, জনগণ ভোট দিয়ে আমাদের ক্ষমতা দিয়েছে। এই ক্ষমতা ভোগের নয় ত্যাগের। এই ক্ষমতা জনগণের কল্যাণের কাজে লাগাতে হবে।

এ সময় বোদা উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে পৌর আওয়ামী লীগের কাউন্সিল অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা