kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

করদাতাদের হয়রানি করলেই শাস্তি

নরসিংদী প্রতিনিধি   

১৭ নভেম্বর, ২০১৯ ১৮:৫২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



করদাতাদের হয়রানি করলেই শাস্তি

নরসিংদীতে আয়কর মেলার উদ্বোধন করছেন এনবিআর চেয়ারম্যান

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূইয়া বলেছেন, আয়কর দাতাদের মধ্যে অনেক সময় হয়রানির ভীতি কাজ করে। কর কর্মকর্তাদের কেউ অহেতুক যদি কাউকে হয়রানি করেন তাহলে অবশ্যই তাকে শাস্তির আওতায় আনা হবে। কারন আয়কর দাতাদের টাকায় এ দেশের উন্নয়ন। রবিবার বিকেলে নরসিংদীতে আয়কর মেলা উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

নরসিংদী জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে রবিবার বিকেলে চারদিন ব্যাপী নরসিংদী আয়কর মেলার উদ্বোধন করা হয়। কর অঞ্চল ১০ এর আয়োজনে মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন এনবিআর চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূইয়া। তিনি বলেন, এখন আর বিদেশ থেকে টাকা আসে না। নিজের টাকা নিজেকেই উপার্জন করতে হয়। এজন্য রাস্তাঘাট, স্কুল-কলেজ, হাসপাতালসহ সার্বিক উন্নয়ন কাজ করতে হয় ট্যাক্সের টাকায়। ট্যাক্স না দেওয়া অন্যায়। যাকাতের মত ট্যাক্স প্রদান করাও প্রত্যেকটা নাগরিকের কর্তব্য। ট্যাক্স না দিলে গুনাহ হবে।  আর আমরা যদি কারো বার্ষিক আয় আড়াই লাখ টাকার বেশি হয় তাহলেই ট্যাক্স নিব।

তিনি বলেন, ভবিষ্যতে আমরা সবার কাছে আসব। প্রত্যেকটা দোকানে দোকানে যাব। ট্যাক্স দেন কিনা যাচাই করব। আর নরসিংদী আমার বাড়ি হিসেবে এখান থেকেই দায়িত্বটা শুরু করব। আমাদের অনেক ব্যবসায়ী রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত। অনেক ব্যবসায়ী আবার জনপ্রতিনিধি। তাদের অনেকে আয়কর দেন না, দিতে চান না। অনেকে মনে করেন আমার টাকা আমি কেন সরকারকে ট্যাক্স দিব। এটা অন্যায় ও প্রতারণা।

কর অঞ্চল-১০ এর কমিশনার মো. আবু তাহের চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জাকির হাসান, কর কমিশনার (জরিপ) মো. আসাদুজ্জামান, নরসিংদী চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি মো. আলী হোসেন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. সফর আলী ভূইয়া প্রমুখ।

আয়োজকরা জানান, নরসিংদীতে ২০১৫ করবর্ষে মোট করদাতা ছিলেন ১৬ হাজার ৭৩৭ জন । বর্তমানে প্রায় ৩৪% বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৫ হাজার ৩৬০ জনে। আগে নরসিংদী থেকে কর আদায় করা হয়েছিল ৮৫ কোটি টাকা। ২০১৮-১৯ করবর্ষে তা বেড়ে প্রায় ১২০ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। নরসিংদীতে আয়কর মেলার প্রথম দিনে প্রায় ১২শ করদাতা আয়কর রিটার্ন দাখিল করেছেন। এছাড়া আমানত শাহ গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. হেলাল মিয়া ২৫ লাখ টাকা, নরসিংদী জেলার সেরা করদাতা সবোধ রঞ্জন সাহা অগ্রিম ১০ লাখ টাকা, তরুন সেরা করদাতা রাশেদুল হাসান, নারী করদাতা হেলেনা হালিম ও দীর্ঘমেয়াদী করদাতা বিষ্ণু সাহা এনবিআর চেয়ারম্যানের হাতে আয়কর রিটার্ন দাখিল করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা