kalerkantho

শনিবার । ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৬ রবিউস সানি               

মতবিনিময় সভায় বক্তারা

উন্নয়ন বৈষম্যের কারণে রংপুর বিভাগে শিল্পায়ন হচ্ছে না

রংপুর অফিস   

১৬ নভেম্বর, ২০১৯ ১৯:০৫ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



উন্নয়ন বৈষম্যের কারণে রংপুর বিভাগে শিল্পায়ন হচ্ছে না

‘উন্নয়ন বৈষম্যের কারণে রংপুর অঞ্চলে শিল্পায়ন হচ্ছে না। ফলে কর্মসংস্থান সৃষ্টি না হওয়ায় রংপুর বিভাগে দিন দিন দারিদ্র্যের হার বাড়ছে। এ কারণে রংপুর বিভাগে দ্রুত শিল্পায়নের বিকল্প নেই।’

আজ শনিবার রংপুর চেম্বার ভবনে দিনব্যাপী বাংলাদেশ চেম্বার অব ইন্ডাস্ট্রিজ (বিসিআই) ও রংপুর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি’র (আরসিসিআই) যৌথ উদ্যোগে রংপুর বিভাগের ধারাবাহিক শিল্প উন্নয়ন কার্যক্রম প্রণয়ন এবং বাস্তবায়ন করার লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় এসব কথা তুলে ধরেন ব্যবসায়ী ও শিল্পোদ্যোক্তারা।

রংপুর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি’র সভাপতি মোস্তফা সোহরাব চৌধুরী টিটুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিসিআই’র সভাপতি ও বিজিএমইএ’র সাবেক সভাপতি ইভেন্স গ্রুপের চেয়ারম্যান আনোয়ার-উল আলম চৌধুরী (পারভেজ)। 

বক্তারা বলেন, গ্যাস সরবরাহ না করা হলে কোনোভাবেই এ অঞ্চলে শিল্পায়ন সম্ভব নয়। কেননা এ অঞ্চলে গ্যাস সরবরাহ নিশ্চিত হলে এসব জেলা থেকে ভারত, নেপাল ও ভুটানের সঙ্গে বাণিজ্য বাড়ার ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে। তাই তারা রংপুর বিভাগে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করার লক্ষ্যে অবকাঠামোগত উন্নয়নের পাশাপাশি আলাদা শিল্প ও ঋণনীতি, ভ্যাট ও কর নীতি প্রণয়ন, আইসিটি শিল্পের উন্নয়নে রংপুরে প্রস্তাবিত হাইটেক পার্ক দ্রুত স্থাপন, ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালু, অঞ্চল ও জেলা ভিত্তিক শিল্পায়নের উদ্যোগ গ্রহণ, দক্ষ শ্রমিক তৈরিতে কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয় ও সার কারখানা স্থাপনসহ ট্যাক্স হলিডের মেয়াদ বৃদ্ধির আহ্বান জানান।

এ ছাড়া অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া এ অঞ্চলের শিল্পায়নের গতি ত্বরান্বিত করতে ব্যবসায়ীক বিভিন্ন সমস্যা নিরসন ও অবকাঠামোগত উন্নয়নে নীতি-সহায়তা প্রদানের দাবি জানান ব্যবসায়ী নেতারা। 

মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন রংপুর চেম্বারের সাবেক সভাপতি, এফবিসিসিআই এর সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট আলহাজ মোস্তফা আজাদ চৌধুরী বাবু, বিসিআই এর ভাইস প্রেসিডেন্ট ও ইউনির্ভাসেল মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের চেয়ারম্যান প্রীতি চক্রবর্তী, বিসিআই এর পরিচালক ও সেমিনার ও সিম্পোজিয়াম স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন রাজা, বিসিআই এর পরিচালক আবুল কালাম ভূইয়া, দিনাজপুর চেম্বারের সভাপতি সুজাউর রব চৌধুরী, নীলফামারী চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি ফারহানুল হক, রংপুর মেট্রোপলিটন চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি গোলাম জাকারিয়া পিন্টু, পঞ্চগড় চেম্বারের পরিচালক খলিলুর রহমান, ঠাকুরগাঁও চেম্বারের পরিচালক মামুনুর রশিদ, রংপুর উইমেন চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি মিসেস শাহনাজ পারভীন, গাইবান্ধা চেম্বারের সভাপতি আলহাজ শাহজাদা আনোয়ারুল কাদির, কুড়িগ্রাম চেম্বারের সহ-সভাপতি অলক সরকার, লালমনিরহাট চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি কাজী নজরুল ইসলাম তপন, রংপুর চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোজতোবা হোসেন রিপন, রংপুর চেম্বারের পরিচালক হাবিবুর রহমান রাজা, রংপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি রশিদ বাবু, সাধারণ সম্পাদক রফিক সরকার, নারী উদ্যোক্তা স্বপ্না রানী সেন, নাফিসা সুলতানা, রংপুর মেট্রোপলিটন চেম্বারের পরিচালক মোস্তফা জামান প্রমুখ।

মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি আনোয়ার-উল আলম চৌধুরী (পারভেজ) উল্লেখ করেন, বিসিআই থেকে সারা দেশের শিল্পোদ্যোক্তাদের সম্পৃক্ত করে তাদের চাহিদা অনুযায়ী কর্মপরিকল্পনা গ্রহণপূর্বক কাজ করার লক্ষ্যে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এ অঞ্চলের অর্থনীতির গতি ত্বরান্বিত করতে ব্যবসায়ীক বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনাগুলো চিহ্নিত করে তা লিখিতভাবে সরকারের উচ্চ মহলেও তুলে ধরার আহ্বান জানান তিনি।

সভাপতির বক্তব্যে রংপুর চেম্বারের প্রেসিডেন্ট মোস্তফা সোহরাব চৌধুরী টিটু বলেন, পিছিয়ে পড়া রংপুর অঞ্চলের অর্থনীতিকে চাঙা করতে হলে শিল্পায়নের কোনো বিকল্প নেই। রংপুর বিভাগে শিল্পায়নের গতি ত্বরান্বিত করতে বিশেষ প্রণোদনা দেওয়ার আহ্বানসহ বিভাগে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল ও আইটি পার্ক দ্রুত স্থাপনের জন্য বিসিআই এর সদয় হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

এ সময় রংপুর বিভাগের সকল চেম্বারের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ, রংপুর চেম্বারের বর্তমান ও সাবেক কর্মকর্তা ও পরিচালকবৃন্দ, অভ্যর্থনা, আপ্যায়ন ও সেমিনার উপ-পরিষদের সদস্যবৃন্দ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও শিল্পপতিবৃন্দ, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা