kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

কবিরাজের কাছে চিকিৎসা নিতে এসে প্রাণ গেল গৃহবধূর

চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১৫ নভেম্বর, ২০১৯ ০১:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কবিরাজের কাছে চিকিৎসা নিতে এসে প্রাণ গেল গৃহবধূর

হবিগঞ্জরের চুনারুঘাট উপজেলার আমরুট বাজারে কবিরাজ হারুন মোল্লার দোকানে এক গৃহবধূর মৃত্যুর ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তোলপাড় চলছে।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টায় উপজেলার মাগুরউন্ডা গ্রামের সেলিম তালুকদারে স্ত্রী রিমু তালুকদার (২০) প্রচণ্ড পেটের ব্যাথা নিয়ে আমরুট বাজারে হারুন কবিরাজের দোকানে চিকিৎসা নিতে যান। সেখানে চিকিৎসারত অবস্থায় তিনি মারা যান। রিমুর মৃত্যুর খবর পেয়ে তার বাবা আত্মীয়-স্বজন তার স্বামীর বাড়িতে জড়ো হয়।

তার বাবা বলেন, মেয়ের চিকিৎসায় গাফলতি হয়েছে। রিমুকে হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসা না দিয়ে কবিরাজের নিকট নেওয়া হয়েছে। তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা দিলে সে বাঁচত। মাত্র এক বছর আগে আমার মেয়েকে খুব জাঁকজমকভাবে বিয়ে দিয়েছিলাম।

কবিরাজ হারুন মোল্লা বলেল, আমি মাগরিবের নামাজে ছিলাম। নামাজ থেকে এসে দেখি রোগী মারা গেছে।

রিমুর স্বামী সেলিম তালুকদার বলেন, বুধবার রাত থেকেই পেটের ব্যাথা। ডাক্তার দেখিয়ে ব্যর্থ হয়ে কবিরাজের শরনাপন্ন হযেছিলাম।

এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত রিমুর বাবা ও শশুর বাড়ির লোকজন দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েছেন। স্থানীয় চেয়ারম্যান সামসুজ্জামান শামিম জানান, উভয় পক্ষের দ্বন্দ্বের কারণে মৃতদেহ দাফনের ব্যবস্থা করা যাচ্ছে না। আলোচনা চলছে।

চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ নাজমুল হক জানান, আমি ঘটনা শুনেছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা