kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

পালিয়ে গিয়েও শেষ রক্ষা হলো না হত্যা মামলার আসামির

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১৫ নভেম্বর, ২০১৯ ০১:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পালিয়ে গিয়েও শেষ রক্ষা হলো না হত্যা মামলার আসামির

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা হাজত থেকে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় হত্যা মামলার আসামি মো. ইয়ামিন (১৮) পুলিশের চোখকে ফাঁকি দিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনার পর বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) ভোরে ময়মনসিংহ থেকে ইয়ামিনকে ফের গ্রেপ্তার করে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ।

সূত্রে জানা যায়, গত ১৮ অক্টোবর সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে এম ভি কীর্তনখোলা -২ লঞ্চে তুচ্ছ ঘটনায় ওই লঞ্চের হোটের বাবুর্চি মো. রুবেলকে বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে লঞ্চের হোটেল বয় ইয়ামিন। খুন করার পর পর ইয়ামিন ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় ইয়ামিনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ইয়ামীনকে গত ৭ নভেম্বর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গ্রেপ্তার করে। এরপর থানায় এনে ইয়ামিনকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (পরিদর্শক অপারেশনস) এর কক্ষে জিঞ্জাসাবাদ করেন। জিঞ্জাসাবাদ শেষে তাকে ঔ রুমে রেখেই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সিদ্দিক ও মিজান রুম থেকে বের হয়ে যান। তখন সুযোগ বুঝে সে কৌশলে হাতকড়া খুলে কর্তব্যরত ডিউটি অফিসার এসআই জহিরুল ইসলামের সামনে দিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় পর ঢাকা জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) শরিফুল ইসলামকে প্রধান করে ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এর পরদিন শনিবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার দারোগাসহ ৬ পুলিশ সদস্যকে পুলিশ লাইনে হাজির করা হয়।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ওসি শাহ জামান ইয়ামিনের গ্রেপ্তার বিষয়টি স্বীকার করে জানান, ইয়ামিন পালিয়ে যাওয়ার পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ময়মনসিংহ থেকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার একটি টিম বৃহস্পতিবার সকালে তাকে ফের গ্রেপ্তার করে নিয়ে এসেছে। আসামির যেন সর্বোচ্চ শাস্তির হয় আমরা সে বিষয়ে চেষ্টা করবো।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা