kalerkantho

শুক্রবার । ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৫ রবিউস সানি          

ইমামের জন্য ভিক্ষুকের সাহায্য নয়

পিরোজপুর প্রতিনিধি   

১৪ নভেম্বর, ২০১৯ ১৮:৪৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইমামের জন্য ভিক্ষুকের সাহায্য নয়

গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ.ম. রেজাউল করিম বলেছেন,  একজন ইমামের জন্য ভিক্ষুকের সাহয্য আর নয়। শেখ হাসিনার সরকার প্রতিটি জেলা উপজেলায় একটি করে মডেল মসজিদ নির্মান করছেন। যেখানে ইমাম-মুয়াজ্জিন, কেয়ারটেকার চালিত হবেন সরকারে বেতন ভাতায়। তবে ভন্ড ও দূর্ণীতিবাজ আলেমদের থেকে দুরে থাকতে হবে। যারা জঙ্গি হওয়ার আহবান জানায় তাদের থেকে সাবধান থাকতে হবে। বৃহস্পতিবার পিরোজপুরে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পিরোজপুরে জঙ্গিবাদ, উগ্রবাদ, মাদক ও সন্ত্রাসবাদসহ সামাজিক বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে ইমাম ও আলেম সমাজের করনীয় শীর্ষক এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ইসলামিক ফাউন্ডেশন ও জাতীয় ইমাম সমিতি জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে এ সভার আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ.ম. রেজাউল করিম। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক এ কে এম সাদ উদ্দিনের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন পুলিশের বরিশাল বিভাগীয় ডিআইজি মো. শফিকুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন, পুলিশ সুপার মো. হায়াতুল ইসলাম খান, পৌর মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক, জেলা ইমাম সমিতির সভাপতি মো. ফারুক আব্দুল্লাহ, হাফেজ রফিকুল ইসলাম প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আক্তারুজ্জামান ফুলু, সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউল আহসান গাজীসহ বিভিন্ন উপজেলার সহস্রাধিক ইমাম ও আলেমগন।
মন্ত্রী শ.ম. রেজাউল করিম বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের কওমী মাদ্রাসাকে স্বীকৃতি দিয়েছেন। শিক্ষা ব্যবস্থায় মাদ্রাসা শিক্ষা একীভূত হয়েছে। এখন মাদ্রাসা থেকে পাশ করা একজন ছাত্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিসহ প্রশাসনের ক্যাডার সার্ভিসে অংশ গ্রহন করার যোগ্যতা রাখছেন। সরকার সব ধর্মের জন্য সম-অধিকার প্রতিষ্ঠায় বদ্ধপরিকর। আমরা সবাই বাংলাদেশের নাগরিক। তাই ধর্মালম্বীদের জানমালের হেফাজত করা প্রতিটি মুসলমানের কর্তব্য।'

মন্ত্রী বলেন, 'ইসলামিক ষ্টেটের নামে যারা জঙ্গি হওয়ার আহবান জানায় তাদের থেকে সাবধান থাকতে হবে। ইসলামের দাওয়াত এমনভাবে দিতে হবে, যেন সেই দাওয়াতে যুব সমাজ জঙ্গি,সন্ত্রাসী না হয়।' পিরোজপুরকে সন্ত্রাস, মাদক ও দূর্ণীতিমুক্ত রাখতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।
সকালে মন্ত্রী ২০০৫ সালের ১৪ নভেম্বর সিরিজ বোমা হামলায় ঝালকাঠীর দুই বিচারক হত্যার স্মরণসভায় অংশ নেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা