kalerkantho

শুক্রবার । ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৫ রবিউস সানি          

এসএসসি’র ফরম পূরণে বাড়তি টাকা আদায়

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি   

১৪ নভেম্বর, ২০১৯ ১৭:৫৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এসএসসি’র ফরম পূরণে বাড়তি টাকা আদায়

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার বিভিন্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণে অতিরিক্তি টাকা আদায় করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে ‘কোচিং, উন্নয়ন ও বিবিধ’ খাতে অতিরিক্ত টাকা নেওয়া হচ্ছে বলে কালের কণ্ঠের কাছে স্বীকারও করেছে কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সরকারের কঠোর নির্দেশনা থাকার পরও উপজেলার বিভিন্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নির্ধারিত ফি’র চেয়ে অতিরিক্ত ‘ফি’ আদায় করা হচ্ছে। এর মধ্যে উপজেলার রতনপুর আবদুল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নির্ধারিত ফি’র চেয়ে দিগুণ টাকা আদায় করা হচ্ছে। এছাড়া খোদ উপজেলা সদরে অবস্থিত নবীনগর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও নবীনগর ইচ্ছাময়ী পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকেও নির্ধারিত ফি’র চেয়ে অতিরিক্ত টাকা আদায় করা হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। 

জানতে চাইলে রতনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা তানজিনা আক্তার বলেন, ফি’র সঙ্গে বিভিন্ন বকেয়া মাসের বেতন নিচ্ছি, তাই টাকাটা বেশি দেখাচ্ছে। তবে সংশ্লিষ্টদের অনুমতি নিয়ে কোচিং ফি বাবদ অতিরিক্ত ছয়শ টাকা নিচ্ছি। এটি সত্য।

নবীনগর ইচ্ছাময়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা কাউছার বেগম বলেন,‘নির্ধারিত ফি’র চেয়ে আমরা বিবিধ বাবদ অতিরিক্ত শুধুমাত্র একশ টাকা করে নিয়েছি। তবে সেটিও পরে ফেরত দেওয়া হয়েছে।

নবীনগর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আবু মোছা বলেন, বিবিধ ও উন্নয়ন বাবদ আমরা অতিরিক্ত চারশ টাকা করে নিচ্ছি। পরীক্ষা চলাকালে নানান খাতে এটি খরচ করা হবে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মোকাররম হোসেন বলেন, নির্ধারিত ফি’র চেয়ে এক টাকাও বেশি নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। তবে বিভিন্ন সূত্রে আমরাও নানান অভিযোগ পাচ্ছি। আগামী সোমবারের মধ্যে অতিরিক্ত নেওয়া সব টাকা ফেরত দেয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

উপজেল নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মাসুম কালের কণ্ঠকে বলেন, স্কুলগুলোর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের সত্যতা পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা