kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

বিশ্বনাথে বিষমুক্ত লাউয়ের হাট

বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি    

১৪ নভেম্বর, ২০১৯ ১১:২৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিশ্বনাথে বিষমুক্ত লাউয়ের হাট

সিলেটের বিশ্বনাথের খাজাঞ্চি ইউনিয়নের মুফতি বাজারে নিয়মিত বসছে বিষমুক্ত লাউয়ের হাট। স্থানীয় লাউ চাষিরা ভোর থেকেই লাউভর্তি ভ্যান নিয়ে লাউ বিক্রির জন্য হাজির হন স্থানীয় মুফতির বাজারে।

বাজারে সরেজমিনে দেখা যায়, চারদিকে লাউ আর লাউ। খাজাঞ্চি  ইউনিয়নের বিভিন্ন জায়গা থেকে লাউ চাষিরা এসব লাউ মুফতির বাজারে নিয়ে আসেন। প্রতিদিন ভোর থেকে দুপুর পর্যন্ত মুফতির বাজারে বসে এই লাউয়ের হাট। লাউ চাষ করে সাবলম্বী হয়ে উঠছেন স্থানীয় কৃষক। এসব লাউ উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজার ছাড়াও সিলেট বিভাগের সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার জেলার বিভিন্ন উপজেলায় বিক্রি হয়। চাষিরা প্রতিদিন উপজেলার খাজাঞ্চি ইউনিয়নের মুফতির বাজার সকালে লাউ নিয়ে আসেন। বিশ্বনাথের সব চেয়ে বড় সবজির বাজার হিসেবে পরিচত মুফতির বাজার। এ বাজার থেকে প্রতিদিন সকালে দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন ধরনের সবজি সরবরাহ করা হয়।

সবজি চাষিদের সঙ্গে আলাপকালে জানা যায়, মৌসুমের শুরুতে লাউ বিক্রি শুরু করতে পারায় বেশি টাকা আয় করা সম্ভব বলে মনে করছেন লাউ চাষিরা। এসব লাউ সিলেট নগরীর বিভিন্ন আড়তে পাইকারি দরে বিক্রি হয়। অনেক সময় পাইকারি ব্যবসায়ীরা তাজা  লাউ কিনতে সরাসরি ক্ষেতে চলে যান। স্থানীয় বাজারে এ লাউয়ের প্রচুর চাহিদা। কীটনাশকমুক্ত ও সার কম থাকায় সিলেটের বাইরের লাউয়ের থেকে স্থানীয় এ লাউ সুস্বাদু।

মুফতির বাজার পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান রানা বলেন, আমাদের এলাকায় প্রতি বছর প্রচুর সবজি চাষাবাদ হয়ে থাকে। প্রতিদিন স্থানীয় মুফতির বাজার লাউ চাষিরা লাউ এনে বিক্রি করেন।

খাজাঞ্চি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তালুকদার গিয়াস উদ্দিন বলেন, 'মুফতির বাজারে বিষমুক্ত শীতকালীন সবজি সবচেয়ে বেশি পাওয়া যায়। তাই এই এলাকার সকল সবজি চাষি এ বাজারে তাদের সবজি বিক্রির জন্য নিয়ে যান।' উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রমজান আলী বলেন, 'এবার শীতকালীন  আগাম লাউয়ের ভালো ফলন হয়েছে।'    

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা