kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৭ রবিউস সানি ১৪৪১     

কসবায় ট্রেন দুর্ঘটনা : ১০ কারণ খতিয়ে দেখছে তদন্ত কমিটি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ১৮:৪৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কসবায় ট্রেন দুর্ঘটনা : ১০ কারণ খতিয়ে দেখছে তদন্ত কমিটি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশনে ঘটে যাওয়া ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা তদন্তে গঠিত একটি কমিটি প্রাথমিকভাবে ১০টি কারণ খতিয়ে দেখছে। এর মধ্যে একটি কারণকে চিহ্নিত করে আগামীকাল বৃহস্পতিবার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে। এ ছাড়া তদন্তে গঠিত আরো চারটি দলও কাজ করে যাচ্ছে।

গতকাল মঙ্গলবার গভীর রাতে মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় ঢাকাগামী তূর্ণা নিশিথার সঙ্গে চট্টগ্রাম অভিমুখী উদয়ন এক্সপ্রেসের সংঘর্ষে ১৬ যাত্রী নিহত হন। আহত হন অর্ধশতাধিক যাত্রী। দুর্ঘটনার কারণে চট্টগ্রামের সঙ্গে ঢাকা ও সিলেটের রেলযোগাযোগ প্রায় আট ঘণ্টা বন্ধ থাকে।

আজ বুধবার বিকেলে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে তদন্ত দল মন্দবাগ আসেন। তারা আউটার ও হোম সিগন্যালে কোনো ত্রুটি ছিলো কি-না সে বিষয়টি ভালোভাবে খতিয়ে দেখেন। রফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদেরকে জানান, তদন্ত করে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

কথা হয় রেলপথ মন্ত্রণালয়ের আরেকটি তদন্ত কমিটির প্রধান বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা (পূর্ব) মো. নাসির উদ্দিনের সঙ্গে। কালের কণ্ঠকে তিনি বলেন, ভোরের সয়মটাতে পরিস্থিতি কেমন সেটা আমরা ঘুরে দেখেছি। দুর্ঘটনার ১০টি কারণ প্রাথমিকভাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। সেখান থেকে একটি কারণ চিহ্নিত করে বৃহস্পতিবার প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে। চালকের ভুলের পাশাপাশি, সিগন্যালের ত্রুটি, আবহাওয়া জনিত কারণ এসবের মধ্যে রয়েছে বলে তিনি স্বীকার করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসন গঠিত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মিতু মরিয়ম বুধবার সন্ধ্যায় এ প্রতিবেদককে বলেন, আমরা প্রত্যক্ষদর্শী, এলাকার লোকজন, স্টেশন মাস্টারসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলেছি। দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কে তারা যেসব কারণ বলছে সেগুলোকে বিশ্লেষণ করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করবো। তিন কার্য দিবসের নির্ধারিত সময়েই প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা