kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৭ রবিউস সানি ১৪৪১     

রাজৈরে নানার কাঁচির কোপে নাতনির মৃত্যু

রাজৈর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি   

১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ১৪:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজৈরে নানার কাঁচির কোপে নাতনির মৃত্যু

মাদারীপুরের রাজৈরে নানার কাঁচির কোপে ৯ মাস বয়সী নাতনি মরিয়মের মৃত্যু হয়েছে। আজ বুধবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার সাতবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে প্রেরণ করেছে। নিহত মরিয়ম মাদারীপুর সদর উপজেলার কুচিয়ামড়া গ্রামের জাহাঙ্গীর শেখের মেয়ে । 

পুলিশ, পারিবারিক ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে , সাতবাড়িয়া গ্রামের করম ফরাজীর মেয়ে জাপানী বেগমের(৩০) বিয়ের পর থেকে বাবার বাড়িতেই থাকে। এ নিয়ে তাদের পারিবারিক কলহ লেগেই থাকত। আজ বুধবার সকাল ৮টার দিকে পারিবারিক কলহের জের ধরেই জাপানীকে কাঁচি দিয়ে কোপ দিতে যায় করম ফরাজী।এ সময় জাপানীর কোলে থাকা ৯ মাসের শিশু কন্যা মরিয়মের মাথায় কোপ লাগে। গুরুতর আহতাবস্থায় মরিয়মকে চিকিৎসার জন্য রাজৈর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে মরিয়মের প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার প্রস্তুতিকালে মারা যায় সে।

নিহত শিশু কন্যা মরিয়মের বাবা জাহাঙ্গীর জানান, আমার স্ত্রী জাপানী বেগম ও শাশুড়ি ফয়জুন বেগম ঝগড়া করছিল। এ সময় আমার শ্বশুড় করম ফরাজী মাঠ থেকে এসে এ ঝগড়ায় লিপ্ত হয় এবং ক্ষিপ্ত হয়ে আমার স্ত্রী জাপানীকে কাঁচি দিয়ে কোপ দেয়। কিন্তু সেই কোপ জাপানীর গায়ে না লেগে আমার শিশু কন্যা মরিয়মের মাথায় লাগে ।

রাজৈর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ সুবাস সরকার জানান, আহত শিশুটিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর নেওয়ার প্রস্তুতিকালে মারা যায় সে। তার মাথায় বড় ধরনের আঘাত রয়েছে ।

এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে রাজৈর থানার ওসি মোঃ শাহজাহান জানান, এক শিশু কন্যার লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছি। অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা