kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

আগামী ১৭ নভেম্বর

১৫ বছর পর হচ্ছে কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি   

১২ নভেম্বর, ২০১৯ ২১:৪৩ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



১৫ বছর পর হচ্ছে কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন

দীর্ঘ ১৫ বছরেও ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠিত হয়নি। আর ১৫ বছর পর আগামী ১৭ নভেম্বর শহরের সরকারি ভুষণ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে এ আওয়মী লীগের ত্রিবার্ষিকী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বর্তমানে এ সম্মেলনকে কেন্দ্র করে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা যাচ্ছে।

সম্মেলনকে জাঁকজমকপূর্ণ করতে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রধান কার্যালয়, গুরুত্বপূর্ণ স্থান ও সড়কে আলোকসজ্জাসহ বিভিন্ন স্থানে রঙ্গিন পোস্টার সাঁটানো হয়েছে। প্রতিদিন সকাল সন্ধ্যায় নেতাকর্মীরা শহরে আনন্দ মিছিল বের করছেন। অপরদিকে সম্মেলনেকে কেন্দ্র করে কে হচ্ছেন আগামী দিনের সভাপতি ও সম্পাদক তা নিয়ে চলছে নানা জল্পনা কল্পনা। 

স্থানীয় আওলীগের একাধিক নেতাকর্মীরা জানান, দীর্ঘ ১৫ বছর আগে ২০০৪ সালের ২২ এপ্রিল কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সন্মেলন হয়। সে সম্মেলনে সাবেক এমপি আবদুল মান্নান সভাপতি ও বর্তমান এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন। কিন্তু ১৫ বছর অতিবাহিত হলেও অদ্যাবধি সেই কমিটি নানা মতানৈক্যর কারণে পূর্ণাঙ্গ কমিটির মুখ দেখতে পারেনি।

গত ২২ অক্টোবর জেলা নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের এক বর্ধিত সভায় আগামী ১৭ নভেম্বর ২০১৯ সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হয়। এরপর থেকেই সম্মেলনকে ঘিরে উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দের মাঝে উৎসব উদ্দীপনা ফিরে এসেছে। 

এবারের সম্মেলনে নতুন কমিটিতে পদ পদবীর আশায় অনেকেই লবিং তদবির শুরু করেছেন। এসব নেতারা জেলা ও ঢাকাতে কেন্দ্রীয় নেতাদের আশীর্বাদ পেতে নানা দেনদরবার চালাচ্ছেন বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে।

বর্তমান এমপি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল আজিম আনার আগামী সম্মেলনে কোন পদে প্রার্থী হবেন তা নিয়েও চলছে ব্যাপক জল্পনা কল্পনা। নেতাকর্মীদের কেউ কেউ বলেছেন জনপ্রিয় নেতা এমপি আনার যে পদে আছেন সেই পদেই প্রার্থী হতে পারেন। তবে তার সভাপতি বা সম্পাদকের পদ পদবীতে প্রার্থীর থাকার বিষয়টি কাউন্সিলেই প্রকাশ হতে পারে বলে অনেকেই মন্তব্য করছেন।

ইতোমধ্যে আগামী নতুন কমিটিতে আরো যারা প্রার্থী হতে পারেন এমন অনেকেরই নামের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। তাদের মধ্যে সভাপতি পদে বর্তমান এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার, সাবেক এমপি আবদুল মান্নান ও উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর সিদ্দিকী ঠান্ডু। 

সাধারণ সম্পাদক পদে যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা ও কাষ্টভাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আয়ুব হোসেন, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মতিয়ার রহমান মতি এবং সাবেক মেয়র ও যুবলীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান বিজু এবং ঝিনাইদহ জেলা বারের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ মিন্টুর নাম শোনা যাচ্ছে। এ ছাড়াও কমিটির অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পদ গুলিতে আসতে স্থানীয় অনেকেই ফেস্টুন-বিলবোর্ড টাঙিয়েছেন। ইতোমধ্যে ওইসব নেতারা স্থানীয়, জেলা ও ঢাকাতে কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে জোর লবিং করছেন।

আগামী ১৭ নভেম্বর সম্মেলনে প্রধান অতিথি থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান ও বিশেষ অতিথি থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য পারভিন জামান কল্পনা। বর্তমান এমপি ও কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল আজিম আনারের সঞ্চালনায় এ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করবেন সাবেক এমপি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল মান্নান।

সম্মেলনের প্রস্ততির জবাবে এমপি আনোয়ারুল আজীম আনার বলেন, আওয়ামী লীগ জনগণের ক্ষমতায়নে বিশ্বাসী পূর্ণ গণতান্ত্রিক কর্মীবান্ধব একটি দল। বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাত ধরে এগিয়ে যাচ্ছে। সম্মেলনের মাধ্যমে যোগ্য নেতৃত্ব নির্বাচনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ অতিতের যেকোনো সময় থেকে এখন অনেক বেশি সুসংগঠিত।

তিনি আরো বলেন, এবারের সম্মেলনে ২০ হাজারের অধিক নেতাকর্মী স্বতঃস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণ করবে। জাঁকজমকপূর্ণভাবে এবারের সম্মেলন কালীগঞ্জে স্মরণকালের স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

সম্মেলন সফল করতে ইতোমধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল মান্নানকে আহ্বায়ক, সাবেক সভাপতি, উপজেলা চেয়ারম্যান শাহ এস এম জাহাঙ্গীর ছিদ্দিকী ঠান্ডু ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইসরাইল হোসেনকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এবারের সম্মেলনকে ঘিরে তোরণ নির্মাণ, আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়, শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক, স্থাপনায় আলোক সজ্জা, বিলবোর্ডে সজ্জিত করা হচ্ছে। ওইদিন সম্মেলন শেষে লালন ব্যান্ড ও কোলকাতার জি বাংলার সংগিত শিল্পীদের পরিবেশনায় এক সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজন করেছে কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা