kalerkantho

শনিবার । ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৯ রবিউস সানি ১৪৪১     

চবিতে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীকে মারধর

ছাত্রলীগকর্মীর গ্রেপ্তার দাবি করে আলটিমেটাম

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

১২ নভেম্বর, ২০১৯ ০২:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছাত্রলীগকর্মীর গ্রেপ্তার দাবি করে আলটিমেটাম

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) শুক্কুর আলম নামের দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী এক শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় ছাত্রলীগের কর্মী মোরশেদুল আলম রিফাতকে স্থায়ী বহিষ্কারসহ গ্রেপ্তারের দাবিতে তিন দিনের আলটিমেটাম দিয়েছে প্রতিবন্ধী ছাত্রসমাজ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (ডিসকু)। গতকাল সোমবার দুপুরে প্রক্টর অফিসে লিখিত অভিযোগের মাধ্যমে এসব দাবি জানান সংগঠনটির নেতাকর্মীরা। এ সময়ের মধ্যে দাবি মানা না হলে কঠোর আন্দোলনে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দেন তাঁরা।

জানা যায়, গত রবিবার রাত সাড়ে ৮টায় দর্শন বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী শুক্কুর রুটি কিনতে গেলে ব্যবস্থাপনা বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী রিফাত তাঁকে নানা প্রশ্ন করে উত্ত্যক্ত করতে থাকেন। একপর্যায়ে শুক্কুর এর প্রতিবাদ করেন। পরে সোহরাওয়ার্দী হলের কাছে পৌঁছালে তাঁকে মারধর করেন রিফাত। এতে কিছুদিন আগে অপারেশন করা শুক্কুরের চোখ আঘাত পায়। পরে চবি মেডিক্যাল সেন্টার থেকে তাঁকে চিকিত্সা দেওয়া হয়। 

ছাত্রলীগ সূত্রে জানা যায়, বেশির ভাগ সময় নেশাগ্রস্ত থাকেন রিফাত। এর আগেও তাঁর বিরুদ্ধে প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে।

ডিসকুর সভাপতি আলফাজ উদ্দিন বলেন, ‘ছাত্রলীগকর্মী রিফাতকে তিন দিনের মধ্যে গ্রেপ্তার ও বহিষ্কার করা না হলে আমরা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে আন্দোলনে মাঠে নামব। এর আগেও অনেক ঘটনায় আমরা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মীকে ছাড় দিয়েছি। কিন্তু এবার রিফাতকে গ্রেপ্তার ও বহিষ্কার করা না হলে আন্দোলন চলবে।’ 

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর প্রণব মিত্র চৌধুরী জানান, রিফাতকে তিন দিনের মধ্যে কারণ দর্শাতে হবে। সদুত্তর দিতে না পারলে তাঁকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে। এ ছাড়া পুলিশ প্রশাসনকে বলা হয়েছে তাঁকে ক্যাম্পাসে দেখলে আটক করতে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা