kalerkantho

বুধবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৩ রবিউস সানি     

গোপালগঞ্জে বুলবুল কাড়ল তিন প্রাণ, বিধ্বস্ত গাছপালা-সবজি ক্ষেত

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি   

১১ নভেম্বর, ২০১৯ ২১:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গোপালগঞ্জে বুলবুল কাড়ল তিন প্রাণ, বিধ্বস্ত গাছপালা-সবজি ক্ষেত

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে গোপালগঞ্জে শিশুসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রবিবার কোটালীপাড়া উপজেলার বান্ধাবাড়ি গ্রামে গাছচাপা পড়ে সেকেন হাওলাদার (৭০) নামে এক বৃদ্ধ এবং সদর উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নের খাটিয়াগড় গ্রামের বাবন কাজীর স্ত্রী মাজু বিবি (৬৫) ঝড়ের সময় গাছচাপা পড়ে নিহত হয়েছেন।

এদিকে আজ সোমবার বেলা ১১টায় কোটালীপাড়ার কান্দি গ্রামে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে ভেঙে যাওয়া ঝুলে থাকা গাছের ডাল পড়ে সাথী বৈদ্য (৬) নামে এক শিশু নিহত হয়েছে। সে ওই গ্রামের সুখরঞ্জন বৈদ্যর মেয়ে।

জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা কালের কণ্ঠকে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। নিহতদের দাফর কাফনের জন্য ইতিমধ্যে ৩০ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। এ ছাড়া গোপালগঞ্জের বিভিন্ন গ্রামে বুলবুলের আঘাতে দুই শতাধিক কাঁচা ঘর বাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। হাজার হাজার গাছপালা ভেঙে গেছে। ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে সবজি ক্ষেতেরও।

গত শনিবার রাত থেকে জেলার কোথাও বিদ্যুৎ সংযোগ নেই। গাছপালা ভেঙে বিভিন্ন রাস্তাঘাট বন্ধ হয়ে গেছে। রাত ৯টায় জেলা সদরে বিদ্যুৎ সীমিত পরিসরে সরবরাহ করা হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস ও এলাকাবাসী গাছপালা কেটে রাস্তা পরিষ্কার করার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

এদিকে বুলবুলের তাণ্ডবে গোপালগঞ্জে টমেটোসহ শীতকালীন সবজির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। উঠতি আমন ধান, কলাগাছ, টমেটোসহ অন্যান্য সবজি ঝড়ে নষ্ট হয়ে যাওয়ায় লোকসানের আশংকায় রয়েছে কৃষকেরা। তবে কৃষকদের পরামর্শ দেওয়ার পাশাপাশি ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরুপণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে কৃষি বিভাগ।

কৃষিবিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বুলবুলের তাণ্ডবে জেলার ৯ হাজার হেক্টরের উঠতি আমন ধান, ৬৭৭ হেক্টর জমির শাক-সবজি ও ৪১ হেক্টর জমির পেঁপে ও কালাবাগান নষ্ট হয়েছে। গাছ ও ফল নষ্ট হওয়ায় জেলার অন্তত ২০ হাজার কৃষক ক্ষতির মুখে পড়েছে।

বুলবুলে সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কোটালীপাড়া, টুঙ্গিপাড়া ও সদর উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে। এ ছাড়া কাশিয়ানী ও মুকসুদপুর উপজেলায়ও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা বলেন, জেলা ও উপজেলা প্রশাসন ও সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিদের ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের ছবিসহ তালিকা প্রস্তুত করতে বলা হয়েছে। পরবর্তীতে তাদের সরকারিভাবে সাহায্য সহযোগিতা করা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা