kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

প্রস্তুত আশ্রয়কেন্দ্রে 'উপস্থিতি' কম

ফকিরহাট প্রতিনিধি   

৯ নভেম্বর, ২০১৯ ১৯:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রস্তুত আশ্রয়কেন্দ্রে 'উপস্থিতি' কম

ফকিরহাট বেতাগা এলাকার সেন্টারে আশ্রয় নেয়া সন্তানসহ এক নারী

বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে শনিবার রাতেই ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। প্রশাসনের তাগাদায় বাগেরহাটের ফকিরহাট ও মোল্লাহাট উপজেলায় সর্বমোট স্থায়ী ও অস্থায়ী ৪২টি নিরাপদ আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। কিন্তু সন্ধ্যা পর্যন্ত সেখানে আশ্রয় নিতে দেখা গেছে খুবই কম সংখ্যাক মানুষকে। নিজ বসতভিটাসহ আশেপাশে অবস্থান করছেন স্থানীয়রা।

সূত্র জানায়, ঘূর্ণিঝড় থেকে মানুষ ও পশুপাখি রক্ষায়  স্থানীয় প্রশাসন নিয়েছে নানামুখী উদ্যোগ। জনপ্রতিনিধিদের সহায়তায় নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে ঝুঁকিপূর্ন এলাকার জনসাধারনকে। ফকিরহাট ও মোল্লাহাট উপজেলায় ৪২টি নিরাপদ আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। তবে গবাদি পশুসহ সহায় সম্পত্তি ফেলে বেশিরভাগ মানুষ আশ্রয় কেন্দ্রে যেতে আগ্রহী নন।

ফকিরহাট উপজেলা চেয়ারম্যান স্বপন দাশ শনিবার নলধা মৌভোগ এলাকায় অস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। তিনি জানান, উপজেলার তিনটি সাইক্লোন সেল্টারসহ ১৬টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুতের পাশাপাশি শতাধিক স্কুল কলেজ মাদ্রাসায় আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে। গুচ্ছগ্রাম আশ্রয়ন প্রকল্পসহ ঝুঁকিপূর্ন স্থানে বসবাসরতদের সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে সাইক্লোন সেল্টারে। শুভদিয়া ও বেতাগায় অবস্থিত সাইক্লোন সেল্টারে অর্ধশতাধিক পরিবার আশ্রয় নিয়েছে। আশ্রিতদের জন্য শুকনা খাবারের পাশাপাশি মোমবাতি বিতরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। জরুরি অবস্থায় অসুস্থ্যদের চিকিৎসা দিতে ভ্রাম্যমান মেডিকেল টিম মাঠে কাজ করছে।

মোল্লাহাট উপজেলার চেয়ারম্যান শাহিনুল আলম ছানা জানান, সাইক্লোন সেন্টারসহ ২৬টি আশ্রয়কেন্দ্রের পাশাপাশি সকল স্কুল কলেজে লোকজনকে সরিয়ে আনার কাজ চলছে। ঝুঁকিপূর্ন স্থানে থাকা সকলকে সরে আসার জন্য মাইকিং করা হয়েছে। এজন্য গঠন করা সহায়ক টিম সর্বক্ষনিক মাঠে কাজ করছে। তবে আশ্রয়কেন্দ্রে বেলা চারটা পর্যন্ত উল্লেখ্যযোগ্য উপস্থিতি পরিলক্ষিত হয়নি।

ফকিরহাট উপজেলা নির্বার্হী কর্মকর্তা মোছাঃ শাহানাজ পারভিন বলেন, 'সম্পদের চেয়ে জীবনের মূল্য আনেক বেশি। তাই গৃহপালিত পশু পাখি বাড়িতে নিরাপদ আশ্রয়ে রেখে ঝুকিপূর্ন স্থান থেকে জনগনকে সাইক্লোন সেন্টার ও নিরাপদ আশ্রয়ে সরে যেতে বলা হয়েছে। শুভদিয়া ও বেতাগা সাইক্লোন সেল্টারে ইতিমধ্যে আনেকেই আশ্রয় নিয়েছেন।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা