kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

বাইসাইকেল চুরি

সৈয়দপুরে যুবককে পিটিয়ে হত্যা, থানায় মামলা

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি   

৯ নভেম্বর, ২০১৯ ১৪:৫১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সৈয়দপুরে যুবককে পিটিয়ে হত্যা, থানায় মামলা

নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরে একটি বাইসাইকেল চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা করা হয়েছে। নিহত যুবক মো. সোহেলের (২৫) বাবা মো. সহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে গত বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) রাতে সৈয়দপুর থানায় মামলাটি দায়ের করেন। এতে চারজনের নাম উল্লেখপূর্বক অজ্ঞাত আরো ১৫/২০ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলার যে সব আসামির নাম উল্লেখ করা হয়েছে তারা হলো শহরের মুন্সিপাড়া খেঁজুরবাগ এলাকার ইলেকট্রিক মিস্ত্রি মো. কাল্লুর ছেলে রকি (২৩), সনু (২৫), জনি (২৭) এবং ফয়সাল (২৮)। আজ শনিবার পর্যন্ত এ মামলার কোনো আসামিকেই গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। তবে আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে, নিহতের বাড়িতে এখনো চলছে শোকের মাতম। নিহত সোহেলের স্ত্রী মোসা. সানা স্বামীর জন্য দিনরাত কান্নাকাটি করছেন। নিহত সোহেলের দেড় বছরে শিশু পুত্র রয়েছে।সোহেলের স্ত্রী সানার এখন একটিই দুশ্চিন্তা, দেড় বছরের শিশুটিকে কে মানুষ করবেন। কে তাকে ও তার সন্তানের দেখভাল করবে।

উল্লেখ্য, নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরের চাঁদনগর মহ্ল্লার মো. সহিদুল ইসলামের ছেলে মো. সোহেল (২৫)। সে সৈয়দপুর বিসিক শিল্প নগরীতে আলম তারকাঁটা ফ্যাক্টরিতে শ্রমিকের কাজ করত। ঘটনার দিন গত ৬ নভেম্বর সন্ধ্যায় তার চুরি যাওয়া বাইসাইকেলের খোঁজে বের হয় সে (সোহেল)। এর একপর্যায়ে শহরের খেঁজুরবাগ এলাকার জনৈক কাল্লুর চার ছেলে সনু, ফয়সাল, জনি ও রকিসহ অজ্ঞাত ১৫/২০ জন বখাটে যুবক মিলে তাকে এলোপাতাড়ি বেদম মারপিট করে। এতে সে গুরুতর আহত হয়। এরপর প্রথমে তাকে সৈয়দপুর ১০০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে এবং পরে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ৭ নভেম্বর ভোর সাড়ে ৫টায় সোহেলের মৃত্যু হয়। 

সৈয়দপুর থানার ওসি মো. শাহাজাহান পাশা জানান, এ ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেছেন। এ মামলাটি তদন্ত করছেন থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আবুল হাসনাত খান।  মামলার আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশি তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা