kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

কেরানীগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় বাবা-ছেলের মৃত্যু, আহত মা

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

৮ নভেম্বর, ২০১৯ ২০:৪৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কেরানীগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় বাবা-ছেলের মৃত্যু, আহত মা

ঢাকা জেলার কেরানীগঞ্জে রুহিতপুরে ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী আসাদুল হক ইপু (৪০) ও তার শিশু সন্তান সোহানের (৬) মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় মটরসাইকেল থাকা সোহানের মা রেশমাও (৩০) আহত হয়েছেন। শুক্রবার (৮ নভেম্বর) বেলা ২টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত আসাদুলের গ্রামের বাড়ি ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জ থানার বাগমারা এলাকায়। তিনি মৃত রেজাউল করিমের ছেলে। তিন ছেলে ও স্ত্রীকে নিয়ে রাজধানীর গেন্ডারিয়া থানার ৩০ নম্বর করাতিটোলা সায়দাবাদ এলাকায় ফ্লাটে বসবাস করতেন। তিনি একটি বেসরকারি কম্পানিতে চাকরি করতেন।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আহত রেশমা জানান, তারা মোটরসাইকেল যোগে ঢাকা থেকে স্বামী-স্ত্রী ও শিশু সন্তানসহ শ্বশুর বাড়ি নবাবগঞ্জের বাগমারা এলাকায় যাচ্ছিলেন। মোটরসাইকেলটি কেরানীগঞ্জের রুহিতপুর পোড়াহাটি এলাকায় পোঁছালে একটি ট্রাক তাদের ধাক্কা দেয়। এতে তারা রাস্তায় পড়ে যান। এ ঘটনায় তিনি নিজে সামান্য আহত হলেও তার স্বামী ও সন্তান মাথায় আঘাত পান। পরে স্থানীয়রা এসে তার স্বামী ও সন্তানকে নিয়ে প্রথমে একটি স্থানীয় ক্লিনিকে নিয়ে যান। তাদের আঘাত গুরুতর হওয়ায় ক্লিনিক থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দেওয়া হয়। এরপর স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় স্বামী ও সন্তানকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান তিনি। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। কর্তব্যরত চিকিৎসক বাবা-ছেলেকে মৃত ঘোষণা করেন। আর রেশমাকে চিকিৎসার জন্য ভর্তি রাখেন।

ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) বাচ্চু মিয়া জানান, বাবা ও ছেলের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে এবং আহত রেশমা ভালো আছে।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ জুবায়ের জানান, খবর পেয়ে আমরা সঙ্গে সঙ্গেই ঘটনাস্থলে যাই। এরপর ঘাতক ট্রাকটি আটক করি। চালক ও চালকের সহকারী পালিয়ে গেছে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা