kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৯ নভেম্বর ২০১৯। ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সড়কে নিভে গেল মোটরসাইকেল চালকের প্রাণ

হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি   

২৩ অক্টোবর, ২০১৯ ২২:৫০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সড়কে নিভে গেল মোটরসাইকেল চালকের প্রাণ

নিহত মেহেদী হাসান বাবুল। ছবি : কালের কণ্ঠ

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে আজ বুধবার দিনশেষে সড়কে নিভল এক মোটরসাইকেল চালকের প্রাণ। এদিন সন্ধ্যায় চাঁদপুর কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের হাজীগঞ্জের আলীগঞ্জস্থ চাঁদপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সদর দপ্তরের সামনে অজ্ঞাত গাড়ির ধাক্কায় মেহেদি হাসান বাবুল (২৫) নামের মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়। একই ঘটনায় মোটরসাাইকেলের অপর আরোহী নাজমুল হক (২৫) গুরুতর আহত  হয়েছেন।

মেহেদি জেলার শাহরাস্তি উপজেলার টামটা উত্তর ইউনিয়নের বলশিদ গ্রামের ভুইয়া বাড়ির বতু মিয়ার ছেলে। নাজমুল একই উপজেলার টামটা দক্ষিণ ইউনিয়নের রাড়া গ্রামের লিটন মিয়ার ছেলে। খবর পেয়ে হাজীগঞ্জ থানা উপ-পরিদর্শক (এসআই) রমিজ উদ্দিনসহ সঙ্গীয় ফোর্স নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নিয়ে আসে।

আলীগঞ্জ এলাকার স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, সন্ধ্যায় কুমিল্লা-চাঁদপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের চাঁদপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সদর দপ্তরের সামনে অজ্ঞাত গাড়ি মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে সড়ক থেকে ছিটকে পড়ে মোটরসাইকেল চালক মেহেদী হাসান বাবুল ও নাজমুল হক গুরুতর আহত হয়।

পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বাবুলকে মৃত ঘোষণা করে এবং নাজমুল হক প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

এদিকে মোটরসাইকেলটিকে একটি বালুবাহী ট্রাক ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায় এবং ট্রাকটিকে কচুয়া উপজেলার জগতপুর নামক স্থান থেকে আটক করা হয়েছে এমন একটি কথা হাসপাতাল এলাকায় চাউর হয়ে পড়ে। তবে এর সত্যতা কেউ নিশ্চিত করতে পারেনি।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (টিএইচও) ডা. আনোয়ারুল আজিম কালের কণ্ঠকে জানান, মেহেদী হাসান বাবুলকে হাসপাতালে মৃত অবস্থায় পেয়েছি। আহত নাজমুল হককে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন রনি বলেন, নিহত মেহেদী হাসান বাবুলের মরদেহ সুরতহাল রিপোর্ট শেষে থানা হেফাজতে নিয়ে আসা হয়েছে। এ বিষয়ে বিস্তারিত খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে। পরবর্তীতে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা