kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

গফরগাঁওয়ে শিহাব হত্যা মামলায় ১১ জনের যাবজ্জীবন

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

২৩ অক্টোবর, ২০১৯ ২২:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গফরগাঁওয়ে শিহাব হত্যা মামলায় ১১ জনের যাবজ্জীবন

ছবি: কালের কণ্ঠ

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে আলোচিত শিহাব হত্যা মামলায় ১১ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার বিকেলে ময়মনসিংহ জেলা ও দায়রা জজ বিশেষ আদালতের বিচারক মো. এহ্সানুল হক এ আদেশ দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- একই এলাকার হাফিজ উদ্দিনের ছেলে মোফাজ্জল (৩৩), মৃত ওয়াজেদ আলীর ছেলে ইলিয়াস (২৫), আবুবক্কর ছিদ্দিকের ছেলে মামুন (২৮), মৃত আব্দুল মতিনের ছেলে মোস্তফা কামাল (৩৭), রইছ উদ্দিনের ছেলে পলাশ (২৯), মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে জজ মিয়া ( ৩০), মৃত লোকমান হেকিমের ছেলে খোকন (৪২), মিজানুর রহমানের ছেলে সবুজ (২৭), আব্দুল বারির ছেলে আনোয়ার (২৬), মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে সোহাগ (২৫), মৃত সিরাজ উদ্দিনের ছেলে আলম (২৯)। দণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে ইলিয়াস, আনোয়ার, আলম পলাতক রয়েছে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১২ সালের ১৯ অক্টোবর আসরের নামাজের পর উপজেলার পাগলা থানাধীন দীঘারপাড় গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে কিশোরগঞ্জ গুরুদয়াল কলেজের অনার্সের শিক্ষার্থী শিহাব হাসান বাবু বাসা থেকে বের হয়। রাতে মোবাইলে তার মাকে জানায়, সে ডিস ব্যবসার অংশীদার নিয়ে এক দরবারে রয়েছে। রাতে শিহাব আর বাড়ি ফিরেনি। পর দিন ২১ অক্টোবর বিকেলে পরিবারের লোকজন খবর পায় পাশের ব্রহ্মপুত্র নদে শিহাবের লাশ ভাসছে। পরে পরিবারের লোকজন ও স্বজনরা এসে লাশ শনাক্ত করেন। এর তিন দিন পর শিহাবের মা সেলিনা খাতুন বাদী হয়ে পাগলা থানায় মামলা করলে পুলিশ ঘটনা তদন্ত করে ১১ জন আসামির বিরুদ্ধে আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। 

মামলাটিতে রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী ছিলেন শেখ আবুল হাসেম ও আসামি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন সোহরাব উদ্দিন খান। মামলা পরিচালনায় দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া ও শুনানিতে ১৪ জন সাক্ষির স্বাক্ষ্য গ্রহণ ও পর্যালোচনা শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে জেলা ও দায়রা জজ বিশেষ আদালতের বিচারক মো. এহ্সানুল হক ৮ আসামির উপস্থিতিতে রায় প্রদান করেন। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা