kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৯ নভেম্বর ২০১৯। ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

স্বামীর বাড়িতে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ, পরিবারের দাবি হত্যা

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৩ অক্টোবর, ২০১৯ ১৭:৪০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বামীর বাড়িতে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ, পরিবারের দাবি হত্যা

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে মঙ্গলবার বিকেলে খবর পেয়ে পুলিশ উপজেলার গালা ইউনিয়নের বিনোটিয়া ঘোনাপাড়া গ্রাম থেকে রিতা খাতুন (১৯) নামে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করে। রিতার বাবা আবুল কাশেমের দাবি, চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা রিতাকে পরিকল্পতিভাবে হত্যা করা হয়েছে।

মামলার এজাহার ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, এক বছর আগে গালা ইউনিয়নের বিনোটিয়া ঘোনাপাড়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে সাইদুর রহমানের সঙ্গে পাশের গ্রামের আবুল হোসেনের কন্যা রিতা খাতুনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে স্বামীর পরিবারের লোকজন রিতাকে নির্যাতন করে আসছিল। হঠাৎ করেই গতকাল মঙ্গলবার স্বামীর বাড়ি থেকে রিতার বাবার বাড়িতে খবর দেওয়া হয় রিতা আর নেই। খবর পেয়ে রিতার বাবা ও স্বজনেরা বাড়িতে গিয়ে দেখে রিতার লাশ পড়ে আছে। এ সময় রিতার শ্বশুর বাড়ির লোকজন আত্মগোপন করে। 

পরে পুলিশকে খবর দেয়া হলে শাহজাদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) শহিদুল ইসলাম ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থর থেকে বিকেলে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য আজ বুধবার সকালে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যার বঙ্গমাতা শেখ ফজিরাতুন্নেছা মুজিব হাসপাতালে প্রেরণ করে।

এ ঘটনায় রিতার বাবা আবুল কাশেম বাদী হয়ে রিতার স্বামী সাইদুর রহমান, শ্বশুর আব্দুর রাজ্জাক, শাশুড়ি নয়ন তারা, ননদ (স্বামীর বোন) রাজিয়া খাতুন ও মো. মনিকে (৪৫) আসামি করে মঙ্গলবার রাতেই থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। 

শাহজাদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) শহিদুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে রিতাকে হত্যা করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে। আসামিরা পলাতক রয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা