kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

শ্যালকের স্ত্রীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক

শ্বশুর বাড়ির গাছে জামাইয়ের লাশ

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, রংপুর   

২৩ অক্টোবর, ২০১৯ ১৭:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শ্বশুর বাড়ির গাছে জামাইয়ের লাশ

শ্যালকের স্ত্রীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কের জেরে রংপুরের মিঠাপুকুরে শ্বশুর বাড়িতে সাইফুল ইসলাম মন্ডল (৩৯) নামে এক ব্যবসায়ীকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহতের স্বজনদের দাবি তাকে হত্যার পর গাছে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। আজ বুধবার সকালে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় একটি আমগাছ থেকে ওই ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়। ঘটনাটি ঘটে উপজেলার ময়েনপুর ইউনিয়নের বাতাসন এলাকায়।

নিহতের স্বজন ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বদরগঞ্জ উপজেলার লোহানীপাড়া ইউনিয়নের কচুয়া গ্রামের মৃত মোছলে উদ্দিন মন্ডলের ছেলে সাইফুল ইসলাম মন্ডল স্ত্রীসহ এক মেয়ে ও দুই ছেলে সন্তান রেখে বিগত সাত বছর আগে মিঠাপুকুর উপজেলার ময়েনপুর ইউনিয়নের বাতাসন গ্রামের যাদু মিয়ার মেয়ে আনিছা বেগমকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকে ঘরজামাই হিসেবে শ্বশুর বাড়িতে বসবাস করেন সাইফুল। সেখানেই তিনি মুদি দোকানের পাশাপাশি দাদন ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। গতকাল বুধবার ভোরের দিকে বাড়ির অদূরে একটি আমগাছে ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেয় এলাকাবাসী। 

পরে পুলিশ সকালে ঘটনাস্থল থেকে সাইফুলের লাশ উদ্ধার করে। নিহতের পরিবারের দাবি দ্বিতীয় স্ত্রীর ভাই স্বাধীন মিয়ার স্ত্রীর সঙ্গে তার অনৈতিক সম্পর্ক ছিল। ঘটনার দিন রাতে স্বাধীন বাড়ি ফিরে আপত্তিকর অবস্থায় ধরে ফেলেন সাইফুলকে। এ সময় তাকে মারধর করা হয়। পরে তাকে শ্বশুর বাড়ির অন্যান্যরা সাইফুলকে তার বাড়িতে নিয়ে যায়। ভোরের দিকে বাড়ির অদূরে একটি আমগাছে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায় সাইফুলের লাশ। শ্যালকের স্ত্রীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কের জেরে তাকে হত্যার পর গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে এলাকাবাসীরও ধারণা।

ময়েনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক বলেন, রাতে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সঙ্গে সাইফুলের ঝগড়া হয়। এনিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে শোরগোলও শোনা যায়। এর জেরেই হয়তো তাকে হত্যার পর গাছে ঝুলিয়ে দেওয়া হতে পারে।  

মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাফর আলী বিশ্বাস বলেন, ঘটনাটি রহস্যজনক। লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন হাতে আসার পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে তাকে হত্যার পর গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা