kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ছেলের ওপর অভিমান করে মায়ের আত্মহত্যা

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি   

২৩ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছেলের ওপর অভিমান করে মায়ের আত্মহত্যা

প্রতীকী ছবি

মায়ের অপছন্দের মেয়েকে বিয়ে করে আনছে বলে পরের কান কথা শুনে ছেলের ওপর অভিমান করে নিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন হালিমা খাতুন (৫০) নামের অবুঝ মা। মঙ্গলবার বিকেলে পাবনা ঈশ্বরদীর সাহাপুর ইউনিয়নের দীঘা স্কুলপাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নিহত হালিমা ওই এলাকার আকাত আলীর স্ত্রী।

প্রতিবেশী ও নিহতের আত্মীয়-স্বজনদের দেওয়া তথ্য মতে, বেশ কয়েক দিন আগে নিহত হালিমার বড় ছেলে দিনমজুর হালিম বিয়ে করার জন্য একটি মেয়েকে পছন্দ করেন। কিন্তু তার মা ওই মেয়েকে বিয়ে না করার জন্য নিষেধ করেন। ঘটনার দিন মঙ্গলবার সকালে মাঠে কাজে যান। দুপুরে প্রতিবেশিদের কয়েকজন মা হালিমাকে জানান, তার ছেলে হালিম তোমার অপছন্দ করা মেয়েকে একাই গিয়ে বিয়ে করে বাড়িতে আনছেন!

তাদের মুখে এই কথা শুনে আত্ম অভিমানী অবুঝ মা হালিমা সত্যতা যাচাই বাছাই না করেই ছেলের ওপর অভিমান করে নিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেন। বিকেলে হালিম মাঠ থেকে কাজ শেষ করে বাড়িতে এসে মাকে না পেয়ে বাড়ির বাইরে বসে থাকেন। এই সময় হালিমের স্কুলপড়ুয়া ছোট ভাই খেলা করে সন্ধ্যায় বাড়িতে এসে ঘরে ঢুকে দেখেন তার মা গলায় ফাঁস নিয়ে ঝুলে আছেন।

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) অরবিন্দ সরকার জানান, লাশটি রাতে উদ্ধার করে থানা আনা হয়েছে। আজ বুধবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা মর্গে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় থানায় ইউডি মামলা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা