kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

কক্সবাজারে ওলামা-মাশায়েখদের নিয়ে প্রশাসনের মতবিনিময়সভা

গুজবে কান না দেওয়ার আহ্বান

বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার   

২২ অক্টোবর, ২০১৯ ২১:৩৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



গুজবে কান না দেওয়ার আহ্বান

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার মতো গুজব ছড়িয়ে যাতে কোনো কুচক্রী মহল দেশে অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে না পারে সে ব্যাপারে সজাগ থাকার লক্ষ্যে আজ মঙ্গলবার কক্সবাজারে এক মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কক্সবাজার জেলার ৮টি উপজেলার ওলামা-মাশায়েখগণদের সাথে জেলা প্রশাসন এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।

সভায় কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন কোনো প্রকার গুজবে কান না দিয়ে সামাজিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে ও আইন শৃঙ্খলা সুরক্ষায় সহযোগিতা করার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। জেলা প্রশাসক আরো বলেন, সমাজ ও দেশকে অশান্ত করে কোনো ফায়দা লুটার সুযোগ ধর্ম এবং রাষ্ট্রে নেই।

সভায় কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এ বি এম মাসুদ হোসেন বলেন, ফেসবুক হ্যাক করে হ্যাকাররা ধর্মীয় গুজব ছড়িয়ে অশান্ত পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চায়।

আজ মঙ্গলবার সকালে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষ শহীদ এ টি এম জাফর আলম হলে জেলার ওলামা মাশায়েখগণের সাথে এক মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক এবং পুলিশ সুপার এসব বলেন।

সভায় স্থানীয় এমপি আশেক উল্লাহ রফিক বলেন, সামনের শীত মওসুমে গ্রামে-গঞ্জে ওয়াজ মাহফিলেও নানা রকমের গুজব রটানোর এক মোক্ষম সুযোগ আসছে। এ সময়েও মহল বিশেষ দেশে গুজব ছড়িয়ে সমাজকে অস্থির করে দিতে ওৎ পেতে থাকে। এসব বিষয়ে সবাইকে সজাগ থাকার জন্য তিনি আহ্বান জানিয়েছেন। 

মতবিনিময়সভায় অন্যান্যের মধ্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা এবং সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান, কালের কণ্ঠের বিশেষ প্রতিনিধি তোফায়েল আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আবছার ও মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ শাহজাহান এবং ওলামা-মাশায়েখগণ বক্তব্য রাখেন।

সভায় কোনো কুচক্রী মহল অন্য ফেসবুক আইডি হ্যাক করে বিভিন্ন ধরনের গুজব এবং ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করে এমন ফেসবুক পোস্ট দেওয়ার বিষয়ে জনমত সৃষ্টির ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়। সেই সাথে ধর্মীয় আপত্তিকর যেকোনো ধরণের ফেসবুক পোস্ট শেয়ার করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার অপচেষ্টা প্রতিরোধে সকলকে একযোগে কাজ করার আহবান জানানো হয়।

সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে আগামী শুক্রবার জুম্মা নামাজের খুৎবায় গুজব রটিয়ে ধর্মীয় উন্মাদনা সৃষ্টির বিষয় নিয়ে বয়ান করা হবে। সেই সাথে আগামী দু’দিন উপজেলাগুলোতে তৃণমূল জনপ্রতিনিধি ও আলেমদের নিয়ে মতবিনিময় এবং ভোলার প্রকৃত ঘটনার ভিডিও প্রদর্শন করে বাস্তব চিত্র তুলে ধরা হবে।

এমন কাজ করে থাকলে তাকে দ্রুত আইনের হাতে তুলে দেওয়ারও আহবান জানানো হয় সভায়। সভায় দেশ ও জাতির শান্তি এবং সমৃদ্ধি কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা